নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্পে নারায়ণগঞ্জের ক্ষতিগ্রস্থদের পুনর্বাসনের লক্ষ্যে আর্থিক সুবিধা প্রদান করেছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।
মঙ্গলবার (১২ ডিসেম্বর) দুপুরে ফতুল্লা থানাধীন পাগলা এলাকায় প্রাপ্তি সিটির মাঠে সেনাবাহিনীর কন্সট্রাকশন সুপারভিশন কনসালট্যান্ট ও রেলওয়ের সহযোগিতায় প্রকল্প বাস্তবায়নকারী বেসরকারী সংস্থা ডর্প ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে চেক বিতরন অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। উদ্বোধনী দিনে নারায়ণ জেলার ২০ জন ক্ষতিগ্রস্থ ব্যাক্তির মাঝে ক্ষতিপূরণের চেক হস্তান্তর করা হয়।

প্রকল্পের প্রধান প্রকৌশলী মো: আফজাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, পিবিআরএলপির প্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত সচিব প্রকৌশলী গোলাম ফখরুদ্দিন আহমেদ চৌধুরী।

বিশেষে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সিএসসির ডেপুটি চীফ কো-অর্ডিনেটর প্রধান সমন্বয়ক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো: আব্দুল মুকিম সরকার।

আরো উপস্থিত ছিলেন, প্রকল্পের চীফ রিসেটেলমেন্ট কর্মকর্তা এ এম সালাহ উদ্দিন, ডর্প এর প্রতিষ্ঠাতা এ এইচ এম নোমান, কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মনিরুল আলম সেন্টু।

প্রকৌশলী গোলাম মো: ফখরুদ্দিন আহমেদ চৌধুরী বলেন, ‘এই প্রকল্প বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে যারা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন, তাদের প্রত্যেককেই পুনর্বাসনের লক্ষ্যে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘আগামী ২০২১ সালের মধ্যে প্রকল্পটি বাস্তবায়নের পরিকল্পনা রয়েছে। আর এই প্রকল্পটিতে ৩শ’ ৫৮ দশমিক ৪১ হেক্টর জমি অধিগ্রহন করা হবে। ঢাকা থেকে মাওয়া হয়ে ভাঙ্গা পর্যন্ত প্রথম ধাপের প্রকল্পে ৮২ দশমিক ৩৫ কিলোমিটার রেলপথে ক্ষতিগ্রস্থ ৩ হাজার ৫শ’ ৪৮টি পরিবার রয়েছে। বেসরকারী এনজিও সংস্থা ডর্প প্রকল্প এলাকায় ক্ষতিগ্রস্থদের আর্থ-সামাজিক অবস্থা জরিপসহ জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে প্রদত্ত নগদ ক্ষতিপূরণ প্রাপ্তিতে সহায়তা, রেলওয়ের মাধ্যমে পুনর্বাসন সুবিধা এবং দু:স্থ ও দরিদ্রদের জীবিকায়ন পুন:স্থাপন প্রশিক্ষণ সহায়তা প্রদান করছে। এই প্রকল্পে ক্ষতিগ্রস্থদের ১৯৮২ সালের ভূমি অধিগ্রহন আইনের আওতায় ক্ষতিপূরণ দেয়া হচ্ছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here