নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: মাথাব্যাথা নেই দাবী করলেও নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের ২ নং ওয়ার্ডের নির্বাচনের প্রার্থী মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক আহসান হাবিবেব কোন ভোট না পাওয়ার বিষয়টি যেন কোন ভাবেই মেনে নিতে পারছেন না মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ¦ আনোয়ার হোসেন ও সাধারন সম্পাদক এড. খোকন সাহা।
যেই কারনে নিজেদের সমর্থিত প্রার্থী আহসান হাবিবের এই গো হারার কারন খুঁজতে এখন নড়েচড়ে বসেছেন আনোয়ার হোসেন ও খোকন সাহা বলে বিশ^স্ত সূত্রে জানাযায়। তবে এই পরাজয়ের কারন সম্পর্কে কোন প্রতিক্রিয়াই ব্যক্ত করতে চাননি তারা।
মহানগর আওয়ামীলীগের এই শীর্ষ দুই নেতার মতে, আহসান হাবিবের পরাজয় নিয়ে কে কি বললো তাতে তাদের কোন মাথাব্যাথা নেই। সবাই দলের লোক, কিন্তু নির্বাচন হয়েছে অরাজনৈতিক।

জানাগেছে, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভীর সাথে সুসম্পর্ক থাকার পরেও বিগত বছর অনুষ্ঠিত নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের দলীয় মেয়র প্রার্থী হতে আইভীর সাথে বিরোধীতা করে ওসমান পরিবার বলয়ে এসে ভীড়েন মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ আনোয়ার হোসেন। কিন্তু শেষতক তিনি দলীয় মনোনয়ন বঞ্চিত হলেও ওসমান পরিবারের সহযোগিতায় বিনা ভোটে জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হওয়ার সুযোগ পান।

কিন্তু এরপর কয়েক মাস পূর্বে মহানগর যুব মহিলালীগের একটি কমিটি গঠন নিয়ে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমানের সাথে বিরোধে জড়িয়ে পড়েন মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন, সাধারন সম্পাদক এড. খোকন সাহা ও সাংগঠনিক সম্পাদক এড. মাহমুদা মালা। যা নিয়ে ক্ষমতাসীন দলে তুমুল কোন্দলের সৃষ্টি হয়।

তারপর থেকেই রাজনীতিতে অনেকটা কোনঠাসা হয়ে পড়েন আইভী ও শামীম ওসমান বলয় থেকে বেরিয়ে আসা মহানগর আওয়ামীলীগের এই নেতৃবৃন্দরা। চিন্তা করেছিলেন নিজেদের একটি আলাদা বলয় গড়ে তুলতে। যার এসিড টেস্ট হিসেবে
গত ২৪ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত জেলা পরিষদের ২ নং ওয়ার্ডের নির্বাচনে সদস্য পদে মহানগর আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক আহসান হাবিবকে সমর্থন জানিয়ে ছিলেন তারা। কিন্তু বিধি বাম! পরাজয় তো বটেই, একটিও ভোট না পাওয়ায় এখন রাজনীতিতে চরম সমালোচনার শিকার হচ্ছেন আনোয়ার হোসেন ও খোকন সাহা।

আর তাদের সমর্থিত প্রার্থী আহসান হাবিবের এমন পরাজয়ের কারন সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ আনোয়ার হোসেন নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে বলেন, ‘সবাই আমাদের দলের লোক। এটি অরাজনৈতিক নির্বাচন হয়েছে। হাবিবের পরাজয়ের কারনে একেক জন একেক রকম মন্তব্য করছে ঠিকই, কিন্তু তাতে আমাদের কোন মাথাব্যাথা নেই। আমি এব্যাপারে কোন মন্তব্য করতে চাই না।’

এরপর মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এড. খোকন সাহার সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও সংযোগ পাওয়া সম্ভব হয়নি। তবে বিশ^স্ত সূত্রে জানাগেছে সোমবার দুপুরে যখন আনোয়ার হোসেনের সাথে মুঠোফোনে কথা হচ্ছিল এই প্রতিবেদকের, তখন আনোয়ার হোসেনের পাশেই খোকন সাহা বসা ছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here