নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, সকল কাজ করবে মন্ত্রনালয়, সেনাবাহিনী কিন্তু সিটি করপোরেশন সুয়ারেজের ব্যবস্থা করবে। তাই আপনারা যারা এখানে ৮ জন কাউন্সিলর আছেন যাদেরকে ডিএনডিবাসীরা ভোট দিয়ে নির্বাচিত করলো তারা ছোট বোন আইভীর সাথে কথা বলে এ কাজের ব্যবস্থা করবেন। এখানকার মানুষদের জন্য আপনারা এ কাজ করবেন।

রবিবার (১৫ অক্টোবর) বিকেলে নারায়াণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের নাভানা মাঠে ডিএনডির মেঘা প্রকল্পের উদ্বোধনের প্রাক্কালে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাতে আয়োজিত সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি বলেন, আপনারা হাত তুলে ডিএনডিবাসীর সামনে কথা দিন আপনারা এ প্রকল্পের সকল কাজে সহায়তা করবেন। পরে উপস্থিত কাউন্সিলররা হাত তুলে কথা দেন উপস্থিত মানুষকে।

মন্ত্রীর বক্তব্য শুরু হবার আগে শামীম ওসমান পানিসম্পদ মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদকে তার মাথায় হাত রাখিয়ে বলেন, আপনি আমার বড় ভাই, প্রকল্পের শুরু হবে জলদি আমার মাথায় হাত দিয়ে কথা দেন, নয়তো আমার মৃত্যুর খবর শুনবেন।

তিনি বলেন, বিএনপির ভালো মানুষ যারা আছে তারা এখানে এসেছেন। তারা মানুষের জন্য কাজ করবেন। আমরা সকল ভালোর পক্ষে। আমরা মানুষের উন্নয়নের পক্ষে।

এমপি বলেন, আমি সংসদে ডিএনডির সমস্যার কথা বলেছি, বলেছি পদত্যাগ করবো। ডিএনডি সমস্যার সমাধান না হলে আমি শামীম ওসমান সংসদ সদস্য থাকতে পারিনা। আমার কথা আমার মায়ের মত নেত্রী বোঝেন। তিনি আমার চোখ দেখেই বুঝতে পারেন, তিনি আমার কথায় মানুষের কস্টের কথা ভেবে এ কাজ দ্রুত করার জন্য একনেকে প্রকল্প পাশ করেন।

তিনি বলেন, আজকে মানুষ আমাদের পিছনে আছে বলে আমরা নেতা, মানুষ না থাকলে আমরা কিছুই না। মানুষের জন্য অন্তত কিছু একটা করে যেতে চাই যেন মৃত্যুর পর আমাদের জন্য মানুষ মনভরে দোয়া করতে পারেন।

তিনি আরো বলেন, আগামী বর্ষায় আমার ভাই বোন মায়েদের এ পচা পানিতে ডুবতে দেবনা। আজকে আপনি বলে যাবেন, কথা দিয়ে যাবেন। লাগলে এক লাখ মানুষ কোদাল নিয়ে আসবো। একসাথে কাজ করবো। আমরা পচা পানিতে আর ডুবে থাকতে চাইনা।

শামীম ওসমান বলেন, প্রয়োজনে পায়ে ধরবো, টেবিল ভাঙবো যা লাগে করবো টাকা কিভাবে আনতে হয় আমি জানি। আমরা মানুষের কাছে ঋনি হয়ে গেছি। কারণ মানুষ আমাদের ক্ষমতায় এনেছে তাই তাদের জন্য যা যা লাগে তাই করবো।

তিনি বলেন, সারাদেশে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে, বিচারপতিকে নিয়ে খেলা চলছে। নারায়ণগঞ্জবাসী সকল ষড়যন্ত্র রুখে দিতে প্রস্তুত। অশান্তি বেগম আসছেন পরোয়ানা নিয়ে তিনি আমাদের দেশের শান্তি নষ্ট করতে আসবেন, এবার আর দেশের মানুষ এসব আগুন সন্ত্রাসীদের আর ছাড় দেবেনা। আমরা নারায়ণগঞ্জবাসী সবসময় আগুন সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করেছি আবারো করবো।

সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন পানিসম্পদ মন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, প্রতিমন্ত্রী নজরুল ইসলাম হিরু, নারায়ণগঞ্জ ৩ আসনের সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সাংসদ হুসনে আরা বাবলী, এমপি সানজিদা খানম, এমপি সৈয়দ আবুল হোসেন বাবলা, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল হাই, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ বাদল, মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক খোকন সাহা, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি আনিসুর রহমান দিপু প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here