পুলিশ নিশ্চিত সাবেক স্বামী রবিনই খুনি

0
700

রাজধানীর কলাবাগানের সেন্ট্রাল রোডে ব্যাংক কর্মকর্তা আরিফুন নেছা আরিফাকে তার সাবেক স্বামী ফখরুল ইসলাম রবিনই খুন করেছে বলে পুলিশ নিশ্চিত হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের ভাই আবদুল্লাহ আল আমিন বৃহস্পতিবার রাতেই রবিনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেছেন। দু’দিনেও তাকে গ্রেফতার করতে না পারায় আরিফার স্বজন ও বন্ধুরা আতঙ্কে রয়েছেন। তারা দ্রুত রবিনকে গ্রেফতার করে বিচারের মুখোমুখি করার দাবি জানিয়েছেন।
জানা যায়, আরিফাকে হত্যার কিছুক্ষণ পরই ৬ জনকে হুমকি দিয়ে রবিন তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে স্ট্যাটাস দেয়। ওই ছয়জনের মধ্যে মাসুদ ও পলাশ নিহতের ভাই, খালাতো বোন শিল্পী, চাচাতো বোনের ছেলে অনিক, বন্ধু রিয়াদ ও বান্ধবী তানজিনা। এদিকে গতকাল শুক্রবার সকালে গ্রামের বাড়ি জামালপুরের পারিবারিক কবরস্থানে আরিফার লাশ দাফন করা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার সকালে সেন্ট্রাল রোডের ১৩ নম্বর বাড়ির নিচতলায় আরিফাকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে রবিন। যমুনা ব্যাংকের কর্মকর্তা আরিফা ওই বাড়ির নিচতলার ফ্ল্যাটে সাবলেট থাকতেন। রবিন তাকে ছুরিকাঘাত করে দৌড়ে পালিয়ে যায়। হত্যাকাণ্ডের কিছুক্ষণ পর সে তার ‘খান ফিরোবিন’ নামের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ছয়জনকে হুমকি দিয়ে স্ট্যাটাস দেয়। কয়েক ঘণ্টা পরই সেই স্ট্যাটাস সরিয়ে নেওয়া হয়।

কলাবাগান থানা পুলিশ জানায়, মামলায় রবিনকে একমাত্র আসামি করা হয়েছে। এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ২০১৩ সালে পরিবারের অমতে রবিন ও আরিফা বিয়ে করে। বিয়ের পর প্রায়ই রবিন তাকে মারধর করত। বনিবনা না হওয়ায় গত বছরের আগস্টে তাদের বিয়ে বিচ্ছেদ হয়। এরপর রবিন আরিফাকে হত্যার হুমকি দেয়। এমনকি রাস্তায় তাকে উত্ত্যক্ত করত। বৃহস্পতিবার মালপত্র ফিরিয়ে দিতে এসে বাসার দরজার কাছে ছুরিকাঘাতে আরিফাকে খুন করে রবিন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও কলাবাগান থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সমীর চন্দ্র সূত্রধর বলেন, ঘটনাস্থলের পাশের বাড়ির সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। রবিনই যে

আরিফাকে হত্যা করেছে, তা ওই ফুটেজে নিশ্চিত হওয়া গেছে। তিনি বলেন, রবিনকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে। তার গ্রামের বাড়ি জামালপুরের বাজারীপাড়ার সকালবাজার এলাকায় বলে জানান তদন্ত কর্মকর্তা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here