নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার উপজেলার রুবেল নামের এক পুলিশ সদস্যকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও গুলি করে হত্যার ঘটনায় কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপনের ছোট ভগ্নিপতি ইমরান (২৭) কে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ।
বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে রূপগঞ্জ উপজেলাধীন বরপা বোনের বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত ইমরান আড়াইহাজার উপজেলার দূর্গম চরাঞ্চাল কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের কালিয়ার চর এলকার শাহ আলম মিয়ার ছেলে। সে তার সমন্ধি স্বপন চেয়ারম্যানের অধীনে বালু উত্তোলনের দেখাভালের চাকুরী করতেন।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জেলা গোয়োন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশের উপ-পরিদর্শক মিজানুর রহমান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার রাতে অভিযান চালিয়ে বরপা থেকে ইমরানকে গ্রেফতার করা হয়। এই মামলার বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

এর আগে এই গত মঙ্গলবার রাতে একই হত্যা মামলায় বরিশাল থেকে পাভেল (৩০) ও ইয়াছিন (২৬) নামের আরও দুই জনকে গ্রেফতার করে ডিবি পুলিশ।

উল্লেখ্য, গত ১ সেপ্টেম্বর পূর্ব শত্রুতার জের ধরে স্থানীয় এলাকার চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপন ও ইউপি সদস্য রূপ মিয়ার সাথে দ্বন্দ হয়। এরই জের ধরে ইউপি সদস্য রূপ মিয়ার ছেলে পুলিশ সদস্য রুবেলকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে এবং গুলি করে হত্যা করে সাইফুল ইসলাম স্বপনের লোকজন। রুবেল ছুটিতে বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলেন। তিনি ডিএমপি পুলিশের কাউন্টার টেররিজম এর সদস্য হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

এ ঘটনায় নিহত রুবেলের বড় ভাই কামাল হোসেন বাদী হয়ে আড়াইহাজার থানায় ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপনকে প্রধান আসামী করে ৩২ জনের নাম উল্লেখ করে আরো অজ্ঞাত ২০/২৫জনের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here