নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: প্রচন্ড তাপদাহের পাশাপাশি নগরীজুড়ে ভয়াবহ যানজটে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে নগরবাসী। নগরীর বঙ্গবন্ধু সড়কের নিতাইগঞ্জ থেকে চাষাঢ়া পর্যন্ত দুই কিলোমিটার অংশে প্রতিদিন ভয়াবহ যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত যানজটে দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন নগরীর বাসিন্দারা।
বৃহস্পতিবার (২৫ মে) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত নগরীতে চলাচলকারী পথচারী ও যাত্রীদের একদিকে প্রচন্ড গরমের কারনে শরীরের ঘাম মুছতে দেখাগেছে। অন্যদিকে, দীর্ঘ যানজটে পড়ে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে সাধারন যাত্রীদের।

জানাগেছে, ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরোনো সড়কের সরকারি মহিলা কলেজের সামনে আনন্দ পরিবহনের অবৈধ বাস কাউন্টার, চাষাঢ়া গোলচত্বরের চারপাশে সিএনজিচালিত অটোরিকশা (সিএনজি) ও নিষিদ্ধঘোষিত টু স্ট্রোক ইঞ্জিনের বেবিট্যাক্সি স্ট্যান্ড গড়ে ওঠায় যানজট ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে। এছাড়া নিতাইগঞ্জে ভূগর্ভস্থ বিদ্যুতের কেবল বসানোর জন্য ডিপিডিসির রাস্তা খোঁড়াখুঁড়ি ও ট্রাক স্ট্যান্ডের কারণে সড়কে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

বেশ কয়েকজন রিক্সারোহী অভিযোগ করেন, একদিকে প্রচন্ড গরম আরেকদিকে ভয়াবহ যানজটের কারনে বেশী ভাড়া দিয়েও রিক্সা পেতে বিড়ম্বনার শিকার হতে হয়েছে। আর কয়েকদিন পরেই রোজা শুরু হবে। তখনো দেখা যাচ্ছে নগরীতে চলাচল করাটাই দু:সাধ্যকর হয়ে পড়বে।

তারা আরো অভিযোগ করেন, বর্তমানে এমন পরিস্থিতি হয়েছে যে, সড়কে বাস ও রিক্সা চলাচলের জন্য আলাদা ডিভাইডার করে দেয়া হলেও কেউ তা মানছে না। যে যেভাবে পারছেন ওভারট্যাক করে চলাচল করছেন। যার ফলে যানজট আরো বেশী পরিমানে সৃষ্টি হচ্ছে।

তাই রোজার পূর্বেই যানজটের কবল থেকে রেহাই দিতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার দাবী জানিয়েছেন সচেতন নাগরিকরা।

এপ্রসঙ্গে নারায়ণগঞ্জ জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে বলেন, আগামী রমজান মাসে নগরীতে যানজট নিরসনের লক্ষে পরিবহন ব্যবসায়ীদের সাথে মিটিং করা হবে। আশা করছি রমজানে যানজট নিয়ন্ত্রনেই থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here