নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, বন্দর প্রতিনিধি: বন্দর ১নং খেয়াঘাটে ইঞ্জিন চাালিত নৌকা চলাচল করতে বাধা দেওয়ার জের ধরে প্রতিপক্ষ শিবু চন্দ্রসহ তার সন্ত্রাসী বাহিনী হামলায় পিতা ও পুত্রসহ ৩ জন রক্তাক্ত জখম হয়েছে।
শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় বন্দর থানার আমিন আবাসিক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলো বাবুল চন্দ্র সাস (৫০) তার ছেলে গোপাল চন্দ্র দাস (২৪) ও তপন চন্দ্র দাস (১৫)। আহতদের স্থানীয় এলাকাবাসী জখম অবস্থায় উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

এ ব্যাপারে আহত বাবুর চন্দ্র দাস বাদী হয়ে ঘটনার ওই দিন দুপুরে ৩ জনকে আসামী করে বন্দর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

আহত সূত্রে জানা গেছে, বন্দর র‌্যালী আবাসিক এলাকার মৃত লাল মহন চন্দ্র দাসের ছেলে শিবু চন্দ্র দাস স্থানীয় এমপি সেলিম ওসমানের নির্দ্দেশকে উপেক্ষা করে বন্দর ১নং খেয়া ঘাটে নৌকার মধ্যে ইঞ্জিন ফিটিং করে নৌকা চালানোর চেষ্টা করে। এতে বাধা দেয় বন্দর পুলিশ ফাঁড়ী এলাকার নৌকার মাঝি বাবুল চন্দ্র দাস। এই নিয়ে র্দীঘ দিন ধরে বাবুল দাসের সাথে প্রতিপক্ষ শিবু চন্দ্র দাসের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়।

এর জের ধরে শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় প্রতিপক্ষ শিবু চন্দ্র দাস একই এলাকার সচিন চন্দ্র দাসের ছেলে সোভাষ চন্দ্র ও তার ভাই সুব্রতসহ অজ্ঞাত ৩/৪ জন সন্ত্রাসী ধারালো অস্ত্রেসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বাবুল চন্দ্র ও তার ছেলে গোলাপ চন্দ্র দাসের উপর হামলায় চালায়। ওই সময় হামলাকারিরা পিতা ও পুত্রসহ ৩ জনকে পিটিয়ে নগদ টাকা, মোবাইল ফোন ও গলার চেইন ছিনিয়ে নেয়। এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হলেও এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত হামলার ঘটনার জড়িত কাউকে গ্রেপ্তারের সংবাদ জানাতে পারেনি পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here