নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: আশংকা সত্যি হলেও ঢাকায় যাত্রাপথে কোন ধরনের প্রতিবন্ধকতাই দমাতে পারেনি নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীদের।
গণপরিবহন চলাচল বন্ধ থাকলেও ট্রাক, ট্রেনসহ ব্যাক্তিগত গাড়ীতে চড়েই বাদ্য বাজনা বাজিয়ে ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে ব্যাপক শো ডাউন করে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সমাবেশে যোগ দেন নারায়ণগঞ্জ জেলার বিএনপি ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষ্যে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে সমাবেশের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি। যেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া।

রবিবার (১২ নভেম্বর) দুপুর ২ টায় সমাবেশ শুরু হলেও নারায়ণগঞ্জ থেকে কেউ কেউ শনিবার সুবিধাজনক সময়ে আর বেশীর ভাগ নেতাকর্মী রবিবার সকাল থেকেই ঢাকার সমাবেশ স্থলে যোগদানের লক্ষ্যে রওয়ানা দেন। কারন, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সমাবেশে ব্যাপক জনসমাগম ঘটানোর লক্ষ্যে কেন্দ্রের বিশাল দায়িত্ব পেয়েছিল যে, নারায়ণগঞ্জের নেতৃবৃন্দরা। তাই কেন্দ্রের প্রত্যাশা পূরণে সমাবেশ ব্যাপক সংখ্যক লোক সমাগম ঘটাতে প্রাণপন চেষ্টা চালায় নারায়ণগঞ্জ বিএনপির শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দরা।

কিন্তু রবিবার ভোর থেকেই ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে চলাচলরত সকল গণপরিবহন চলাচল অঘোষিত ভাবে বন্ধ থাকায় বিকল্প ভাবে লঞ্চ, ট্রেন, ট্রাক, লেগুনাসহ ব্যাক্তিগত গাড়ীতে চড়েই ঢাকার সমাবেশে গিয়ে যোগদান করেন নারায়ণগঞ্জের হাজার হাজার নেতাকর্মী।

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামান ও সাধারন সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদের নেতৃত্বে হাজার হাজার নেতাকর্মী ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে ঢাকায় সমাবেশে যোগ দেন।

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল আমিন শিকদারের নেতৃত্বে বিএনপি ও যুবদলের নেতাকর্মীরা সমাবেশে যোগদান করেন।

মহানগর বিএনপির সভাপতি এড. আবুল কালাম ও সাধারন সম্পাদক এটিএম কামালের নির্দেশনা মোতাবেক মহানগর বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা যে যেভাবে পেরেছেন সেভাবেই ঢাকায় সমাবেশে যোগ দিয়েছেন।

মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খানের নেতৃত্বে শত শত নেতাকর্মী যোগ দেন সমাবেশে।

সকালে শহরের কেন্দ্রীয় রেলষ্টেশন থেকে ট্রেনে চড়ে ঢাকায় যান মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক মাকুসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদেন নেতৃত্বে শত শত নেতাকর্মী।

মহানগর মহিলা দলের আহ্বায়িকা রাশিদা জামাল ও যুগ্ম আহ্বায়িকা কাউন্সিলর আয়েশা আক্তার দিনার নেতৃত্বে মহিলা দলের নেতৃবৃন্দরা গণপরিবহন সংকটের কারনে ট্রেনে চড়ে ঢাকায় গিয়ে সমাবেশস্থলে যোগদান করেন।

এছাড়াও বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা এড. তৈমূর আলম খন্দকার, কেন্দ্রীয় বিএনপির কার্যনির্বাহী সদস্য আলহাজ¦ গিয়াস উদ্দিন আহম্মেদ, মোস্তাফিজুর রহমান দিপু ভূইয়া, আজহারুল ইসলাম মান্নানসহ নারায়ণগঞ্জের সম্ভাব্য এমপি পদ প্রার্থীরাও হাজার হাজার নেতাকর্মী নিয়ে বিভিন্ন প্রতিবন্ধকতা পেরিয়েই সমাবেশ স্থলে যোগদান করেন।

আর বিএনপির নেতাকর্মীদের সমাবেশস্থলের আসতে গনপরিবহন চলাচল বন্ধ করে দিয়ে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করায় আওয়ামীলীগ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এত ছোট মন নিয়ে রাজনীতি করা যায়না বলে মন্তব্য করেন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া।

আর নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির শীর্ষস্থানীয় নেতৃবৃন্দরা বলেন, ‘ঢাকায় সমাবেশে যোগ দেয়ার পথে সরকার গনপরিবহন বন্ধ করে দেয়াসহ নানা ভাবে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করলেও নারায়ণগঞ্জ বিএনপির নেতাকর্মীরা বিভিন্ন ভাবে সমাবেশস্থলে ব্যাপক জন সমাগম ঘটিয়ে প্রমাণ করে দিয়েছে, সরকারের প্রতিবন্ধকতাও নারায়ণগঞ্জ বিএনপিকে ঢাকা যাত্রায় দমাতে পারেনি। বরং প্রতিবন্ধকতা পেরিয়েই খালেদা জিয়ার বক্তব্য শুনতে সমাবেশ স্থলে যোগ দিয়েছে দলীয় নেতাকর্মীরা। ’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here