নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: ২০ দিনের সফর শেষে আগামী ৭ অক্টোবর দেশে ফিরবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাই কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থণা জানাতে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগেও শুরু হয়েছে প্রস্তুতি।
দলীয় স্থানীয় সূত্রে জানাগেছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ঢাকা বিমান বন্দরে অভ্যর্থণা জানাতে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর আওয়ামীলীগ ব্যতীত আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী প্রার্থীরাও নিজেদের কর্মীদের সক্রিয় করতে বেশ তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছেন।

জেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই, নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের সাংসদ গোলাম দস্তগীর বীর প্রতিক, নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সাংসদ আলহাজ¦ নজরুল ইসলাম বাবুর নেতৃত্বে আড়াইহাজার থানা আওয়ামীলীগ, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ শামীম ওসমানের পক্ষে জেলা, মহানগর ও ফতুল্লা সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগ, নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও আওয়ামীলীগ জাতীয় পরিষদের সদস্য এড. আনিসুর রহমান দিপুর নেতৃত্বে দলীয় নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে মিছিল নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে বিমান বন্দরে অভ্যর্থণা জানাবে।

বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে জানান, ‘শনিবার প্রধানমন্ত্রীকে বিমান বন্দরে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে অভ্যর্থণা জানানো হবে। এই লক্ষ্যে দলীয় নেতাকর্মীদের যথা সময়ে খিলগাঁও ফ্লাইওভারের নীচে গিয়ে সমবেত হওয়ার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।’

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ আনোয়ার হোসেন জানান, ‘নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে বিপুল পরিমান নেতাকর্মী নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থণা জানানো হবে। তবে অভ্যর্থণা জানাতে গিয়ে যেন দলীয় নেতাকর্মীদের কারনে জনদূর্ভোগের সৃষ্টি না হয়, সেজন্যও দলীয় নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।’

আওয়ামীলীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য এড. আনিসুর রহমান দিপু জানান, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভ্যর্থণা জানাতে নারায়ণগঞ্জ আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে ঢাকা বিমান বন্দরে যাওয়ার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।’

উল্লেখ্য, প্রাথমিক সূচি অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীর ২ অক্টোবর দেশে ফেরার কথা ছিল। কিন্তু তার গলব্লাডারে অস্ত্রোপচার করায় দেশে ফেরার তারিখ পেছানো হয়।

জাতিসংঘের ৭২তম সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে গত ১৬ সেপ্টেম্বর নিউ ইয়র্কের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
২১ সেপ্টেম্বর শেখ হাসিনা সাধারণ অধিবেশনে বক্তৃতা করেন। তার আগে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সভায় অংশ নেন এবং বেশ কয়েকজন সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে অংশ নেন।

জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে ২১ সেপ্টেম্বর ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। জাতিসংঘের কর্মসূচি শেষে ২২ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী নিউ ইয়র্ক থেকে ভার্জিনিয়ায় যান। সেখানে ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়ের পরিবারের সঙ্গে এক সপ্তাহ কাটিয়ে ২৯ সেপ্টেম্বর দেশের উদ্দেশ্যে তার রওনা হওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু প্রধানমন্ত্রী হঠাৎ পেটে ব্যথা অনুভব করলে তাকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন এবং ‘গলব্লাডারে অস্ত্রোপচারের’ সিদ্ধান্ত নেন। ২৫ সেপ্টেম্বর স্থানীয় সময় রাত ৮টায় সফল অস্ত্রোপচার হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here