নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, মো: সহিদুল ইসলাম শিপু: বন্দর থানাধীন ধামগড় খোচেরছড়া এলাকার নিহত প্রবাসী নজরুলের লাশ ৪ মাসেও দেশে ফিরেনি। প্রবাসী নজরুলের বাড়িতে ৪ মাস যাবত শোকের মাতম চলছে। নিহত নজরুলের স্ত্রী সুলতানা একমাত্র সন্তান জুনায়েদকে নিয়ে স্বামীর লাশ ফিরে পাওয়ার আশায় দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে। গত ১৫ মার্চ সৌদী প্রবাসী আদম বেপারী মজিবরের পাঠানো ভিসায় ৫ লাখ টাকার বিনিময়ে নজরুল সৌদী আরবে যান।

নিহত নজরুলের স্ত্রী সুলাতানা জানান, তার স্বামী বিদেশে যাওয়ার আগে আদম বেপারী মজিবরের স্ত্রী হনুফা বেগম ও ছেলে সোহেলের হাতে ৫ লাখ টাকা তুলে দেয়। নজরুল বিদেশে যাওয়ার পর ১৫/১৬দিন মোবাইলে পরিবারের সাথে যোগাযোগ রাখে।

এর পর থেকে তার কোন খোঁজ না পেয়ে নজরুলের স্ত্রী সুলতানা আদাম বেপারীর স্ত্রী ছেলেকে চাপ দিলে তারা জানায় নজরুল বিদেশে মারা গেছে। ৩ মাস পর বিদেশ থেকে নজরুলের মরদেহের ছবি দেশে পাঠায় মজিবর। কিন্তু লাশ দেশে পাঠায়নি। নজরুলের পাসপোটং নং বিএম-০৩১৫৮৩১, ভিসা নং ই-২২৭১২২৭১৭ ও বিমান টিকেট নং ০৩১৬৩৩২৩২। দীর্ঘ ৪ মাসেও লাশ দেশে না পাঠানোর ফলে সুলতানা স্বামীর লাশ ফেরত চেয়ে আদাম বেপারীদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করে। মামলা নং ১৫০/১৭। আদালত মামলাটি পুলিশের বিশেষ শাখায় তদন্তের দায়িত্ব অপর্ণ করে।

বৃহস্পতিবার সুলতানার বাড়িতে গিয়ে জানা যায়, আদাম বেপারী মজিবর টাকার জন্য ঝগড়া লেগে তার স্বামীকে পিটিয়ে হত্যা করে লাশ ঝুলিয়ে রেখেছিল বলে সুলতানা দাবি করেন। সুলতানা বলেন, তার স্বামীর যে ছবি পাঠানো হয়েছে ছবিতে দেখা যায় লাশের গলায় ও গর্দানে কাটা দাগ ও মুখের দাত উপড়ানো ছিল। তিনি তার স্বামীর লাশ ফিরিয়ে দেয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here