নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: শিল্পনগরী ফতুল্লার বিসিক সড়কে চলাচলকারী মানুষ অনেকটা দুর্বিসহভাবে জীবন-যাপন করছে। এই সড়কের যানজটের ফলে স্বাভাবিক গতিতে যানবাহন চলাচল করতে পারছেনা। প্রতিদিনের যানজটে বিসিকের লক্ষ লক্ষ শ্রমিক ভোগান্তিতে পড়ছেন। মূলত পঞ্চবটি থেকে বিসিক পর্যন্ত ১ কিলোমিটার রাস্তার বেহাল দশার কারণে যানজন নিয়ন্ত্রন অসম্ভব হয়ে পড়ছে।

দেশের বৃহৎতর অন্যতম শিল্পনগরী বিসিকের এমন চিত্র মনে হয় এখানে কোন জনপ্রতিনিধি নেই। যানজটের কারণে ঘন্টার পর ঘন্টা সময় যাচ্ছে রাস্তায়। ৫ মিনিটের রাস্তা পাড়ি দিতে লাগছে ১ ঘন্টার বেশী সময়। পঞ্চবটি থেকে বিসিক যেতে এক থেকে দেড় ঘন্টা সময় এখন নিত্য দিনের ঘটনা। সেইসাথে থাকছে সড়ক দূর্ঘটনার আতঙ্ক। উপায়হীন যাত্রীরাও এ বিষয়টি অনেকটাই যেন মানিয়ে নিয়েছেন। যাত্রী ও চালকদের জন্য সহজ এই রাস্তাটি কঠিনে পরিণত হয়েছে। আরও কঠিন ভাষায় বলতে গেলে, রাস্তাটি এখন যাত্রী ও চালকদের কাছে আতংকের নাম। অতিরিক্ত যানজট ও ট্রাফিক ব্যবস্থার অবহেলার কারণেই এসকল সমস্যায় ভুগতে হচ্ছে বিসিকের শ্রমিকদের।

সোমবার (২০ জানুয়ারী) সরজমিনে গিয়ে দেখো গেছে, বেহাল সড়কের পাশাপাশি সড়কের একাংশে খনন করে বৈদ্যুতিক তার নেয়া হচ্ছে। এর ফলে যানজট বেড়েছে বহুগুন। এই সড়কের যে কোন গন্তব্যে পৌছাতে যত সময় লাগে এর চেয়ে বেশী সময়ক্ষেপণ হয় রাস্তার যানজটের কারণে। এর কারণ হিসাবে চালকরা জানিয়েছেন, সড়কের অবস্থা খুবই খারাপ, যত্রতত্র খানা-খন্দক আর গর্তের সৃষ্টি হয়ে আছে, আর এই সকল খানা-খন্দকে যানবাহন পড়ে যাওয়ার কারণে প্রায়ই রাস্তায় যানবাহন নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। পাশাপাশি সড়কের পরিধি অনেক ছোট হওয়ায় যানজটের পরিমাণ বাড়ছে । যানজটের আরো একটি অন্যতম কারণ হিসেবে ইজিবাইক চিহ্নিত করা হয়। প্রায় ১ হাজার ইজিবাইক চলাচল করে এই সড়কে। পঞ্চবটি থেকে মুক্তারপুর ব্রীজ পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার সড়কের মধ্যে শুধুমাত্র পঞ্চবটি থেকে বিসিক পর্যন্ত যেতে প্রায় এক ঘন্টা সময় পাড় হয়ে গাড়িতে। বিসিকের যানজটের কারণে শুধু বিসিকের শ্রমিকরাই নয়, মুন্সিগঞ্জবাসীও চরম ভোগান্তির শিকার হন।

এই রোডে মুন্সিগঞ্জ থেকে ঢাকা যেতে ঘন্টার পর অপেক্ষা করতে হয় বিসিক সড়কে। এতে নষ্ট হচ্ছে কর্মঘন্টা ও পুড়ছে লাখ লাখ টাকার জ্বালানী। এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন আসা যাওয়া করছে লাখো মানুষ। ফলে স্বাভাবিকভাবে বেড়ে যায় যান চলাচল। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট বিভাগের প্রয়োজনীয় কোন পদক্ষেপ পরিলক্ষিত না হওয়ায় জনমনে ক্ষোভের সৃষ্টি হচ্ছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, যানজট নিরসনে সরকারের পক্ষ থেকে বা স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে সময় উপযোগী, বাস্তব বান্ধন এবং গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া না হলে উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তোলা সম্ভব হবে না। পাশাপাশি যাত্রীসহ পরিবহন সংশ্লিষ্টদের দুর্ভোগের সমাধানও মিলবে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here