নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, ফতুল্লা প্রতিনিধি: ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরে মাদক বিক্রেতাদের ছুরিকাঘাতে দুইজন আহত হয়েছে।
রবিবার (৩১ ডিসেম্বর) রাত ৮ টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। মারাত্মক আহত ইসমাইল হোসেনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এর ঘটনায় মাদক বিক্রেতা পিয়ার আলীর, আল আমিন, সদর আলীসহ বেশ কয়েকজনকে আসামী করে ইসমাইলের ছেলে আশিকুর রহমান ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

দাপা ইদ্রাকপুরের ইয়াদ আলী মসজিদ সংলগ্ন এলাকায় পিয়ার আলী ও তার লোকজন মাদক বিক্রি করে। এতে বিভিন্ন সময় বাধা দিয়ে আসছিল একই এলাকার ইসমাঈল ও এলাকাবাসী। এ নিয়ে গত কয়েকদিন যাবৎ উল্লেখিত এলাকাবাসীর সাথে মাদক বিক্রেতা পিয়ার আলী ও তার লোকজনদের মধ্যে উত্তেজনা চলছিল। রোববার রাত ৮ টার দিকে পিয়ার আলী ও তার লোকজন ইসমাঈলকে রাস্তায় একা পেয়ে ছুরিকাঘাত করে। ইসমাইলের চিৎকারে ঘটনাস্থলে বাবুল নামের এক ব্যাক্তি ছুটে গেলে তাকেও ছুুরিকাঘাত করে হামলাকারীরা। এলাকাবাসী মাদক বিক্রেতাদের ধাওয়া করলে হামলাকারীরা ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যায়। মারাত্মক আহত ইসমাঈলকে আশংকাজনক অবস্থায় প্রথমে খানপুর হাসপাতালে নেয়ার পর,তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেয় কর্তব্যরত চিকিৎসক। আহত ইসমাঈল উল্লেখিত এলাকার মৃত বরম আলীর ছেলে ও বাবুল একই এলাকার বরণ ড্রাইভারের ছেলে বলে জানা গেছে। এ ব্যাপারে ইসমাইলের ছেলে বাদী হয়ে রাতেই ফতুল্লা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছে বলে জানায় থানা সূত্র।

এ ব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানার ওসি কামাল উদ্দিন জানান,এ ঘটনায় এখনো পর্যন্ত কেউ থানায় অভিযোগ করেনি। তারপরও ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অপরাধীদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here