নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, ফতুল্লা প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের সদর উপজেলার ফতুল্লায় (৩) বছরের এক শিশু কন্যাকে ধর্ষনের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এ ঘটনায় শিশুটির মা রোকসানা বেগম বাদী হয়ে রোববার সকালে লম্পট লিমন (১৫) নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় একটি ধর্ষনের মামলা দায়ের করেন। এদিকে অভিযোগ উঠেছে মামলা তুলে নেয়ার জন্য বাড়ীর মালিক আলমগীর ধর্ষিতার পরিবারকে বিভিন্ন ধরনের চাপ প্রয়োগ করছে। ঘটনার পর থেকে লিমন পলাতক রয়েছে।

মামলায় রোকসানা বেগম উল্লেখ্য করেন, ফতুল্লার শাহ্জাহান রোলিং মিল এলাকায় অবস্থিত আলমগীর হোসেনের বাড়ীতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসছে। একই বাড়ীতে লম্পট লিমনের পরিবারও বসবাস করে থাকেন। গত শুক্রবার রাতে বাড়ীর অণ্য ভাড়াটিয়ার রুমে শিশু মেয়েকে ঘরে একা রেখে টিভি দেখার জন্য রোকসানা যান। এ সুযোগে লম্পট লিমন তার শিশু মেয়েকে শাহ্জাহান রোলিং মিল এলাকার পাশ্ববর্তী নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে জোড়পূর্বক ধর্ষন করে। শিশু কন্যার ডাক চিৎকারে সে সহ অন্যান্য লোকজন এগিয়ে এসে দেখতে পায় শিশুটি অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পরে আছে এবং প্রচুর রক্তক্ষরন হচ্ছে। এ সময় শিশুটিকে উদ্ধার করে পাশ্ববর্তী ফার্মেসীতে চিকিৎসা শেষে থানায় মামলা দায়ের করার জন্য প্রস্তুতি নিলে বাড়ীর মালিক আলমগীর মামলা না করার জন্য পরামর্শসহ ঘটনাটি সালিশীর মাধ্যমে সমাধান করার আশ্বাস প্রদান করেন। পরবর্তীত বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পরলে থানা পুলিশকে অবহিত করেন স্থানীয়রা। সংবাদে ঘটনাস্থলে পুলিশ উপস্থিত হয়ে ভিকটিমকে উদ্ধার করে ঘটনায় লম্পট লিমনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা রুজু করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ওসি কামাল উদ্দিন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। পলাতক আসামি লিমনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে এবং ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য নারায়ণগঞ্জ ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে প্রেরন করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here