নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ বলেছেন, এই মার্চ মাসেই জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলো। আর আর বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দীর্ঘ নয় মাসের রক্তক্ষয়ী মুক্তিযুদ্ধের পর আমরা একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র বাংলাদেশ পেয়েছি। বঙ্গবন্ধু এদেশের অবহেলিত, নিপীড়িত পিছিয়ে পড়া জনগোষ্ঠীর অধিকার নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সংবিধান প্রতিষ্ঠিত করেন। কিন্তু যারা আমাদের সার্বভৌমত্ব স্বাধীন রাষ্ট্র কে মেনে নিতে পারিনি সেই কাপুরুষের দল স্বপরিবারে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কে হত্যা করে। তারা বঙ্গবন্ধু কে হত্যার মধ্য দিয়ে তার কৃতিত্ব মুছে ফেলতে চেয়েছিল।

বুধবার (১৪ মার্চ) বিকেলে ফতুল্লা ইসদাইরস্থ পৌর ওসমানী স্টেডিয়ামে সমাজসেবা অধিদফতরধীন ঢাকা বিভাগীয় প্রতিষ্ঠান সমূহের সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে তিনি এসব কথাগুলো বলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, দীর্ঘ ২১ বছর পর জাতির জনকের কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার স্বপ্ন বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন। বঙ্গবন্ধুর হত্যার পর পিতৃ মাতৃহীন ছেলে মেয়েদের কথা বিগত দিনে কখনো কোন সরকার আসলেও চিন্তা করেনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সরকার ক্ষমতায় এসে পিতৃত্ব মাতৃত্বহীন এই ছেলে মেয়েদের মানুষের মত মানুষ গড়ার সুমহান প্রত্যয় নিয়ে তিনি আগামী দিনের আলোর পথে নিয়ে যাওয়ার সকল উদ্যোগ গ্রহণ করেন। দেশের অবহেলিত ও নিপীড়িত মানুষের জন্য কাজ করে তিনি আজ বিশ্বের কাছে নারী নেত্রী হিসেবে প্রশংসিত। তাই তোমাদের কে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সোনার বাংলা গড়তে ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মিশন ও ভিশন বাস্তবায়ন করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে।

ঢাকা বিভাগীয় সমাজসেবা কার্যালয়ের পরিচালক তপন কুমার সাহা’র সভাপতিত্বে ও জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক হেলাল উদ্দিন ভূঁইয়ার সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ মিয়া, এএসপি (ক-সার্কেল) মো: শরফুদ্দীন, সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা তাজমীন জেবিন বিনতে শেখ, সমাজ কল্যাণ মন্ত্রীর পিএস মো: হাবিবুর রহমান, এপিএস মো: নাসিম আহমেদ প্রমুখ।

পরে সমাজসেবা অধিদফতরধীন ঢাকা বিভাগীয় প্রতিষ্ঠান সমূহের সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতাদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here