নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালনে অতীতের নিজের সব রেকর্ড ভেঙ্গে দিয়ে নতুন করে রেকর্ড গড়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান। সারাদেশে কোথাও এমন বিশাল আয়োজনে বর্ণাঢ্য ভাবে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালন করার খবর পাওয়া যায়নি। এ দিনে এমপি সেলিম ওসমানের নিজস্ব উদ্যোগে বন্দর সমরক্ষেত্র মাঠে ৫০০ পাউন্ড এবং নারায়ণগঞ্জ কলেজে ২৬০ পাউন্ড মোট ৭৬০ পাউন্ডের কেক কেটে বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মদিন এবং জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন করা হয়েছে। আর পৃথক দুটি অনুষ্ঠানে স্কুল কলেজের প্রায় ২২ হাজার শিক্ষার্থী সহ বন্দর উপজেলার প্রায় শতাধিক মুক্তিযোদ্ধা এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দরা অংশ গ্রহন করেছেন।

শনিবার (১৭ মার্চ) সকাল ৯টায় নারায়ণগঞ্জ কলেজ প্রাঙ্গন এবং বেলা ১১টায় বন্দরের সমরক্ষেত্র মাঠে এমপি সেলিম ওসমানের উদ্যোগে এবং নারায়ণগঞ্জ কলেজ ও বন্দর উপজেলার প্রশাসনের আয়োজনে পৃথকভাবে জন্মদিনের আনন্দ উদযাপন করা হয়েছে।

এর আগে এমপি সেলিম ওসমানের উদ্যোগে ও বন্দর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বন্দর সমরক্ষেত্র মাঠে ২০১৬ এবং ২০১৭ সাথে যথাক্রমে ৩০০ এবং ৪০০ পাউন্ডে কেক কেটে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনের আনন্দ উদযাপন করা হয়েছে। যা রীতিমত নারায়ণগঞ্জ সহ সারা দেশব্যাপী ব্যাপক আলোচিত হয়েছিলো। ওই অনুষ্ঠানে গুলো উপজেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে ১০ হাজারের অধিক সংখ্যক শিক্ষার্থী অংশ নিয়ে ছিলো।

এ বছর বঙ্গবন্ধুর জীবনী এবং বাংলাদেশের সঠিক ইতিহাস সম্পর্কে ভবিষ্যত প্রজন্মকে জানানোর জন্য সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধান শিক্ষক এবং পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দদের প্রতি আহবান রেখে ছিলেন এমপি সেলিম ওসমান।

তাঁর আহবানে সাড়া দিয়ে শনিবার বন্দর সমরক্ষেত্র মাঠে বন্দর উপজেলার দুটি কলেজ, ২১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৭৫টি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সহ সকল কিন্ডার গার্টেন এবং মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন পালন উৎসবে প্রায় ২০ হাজার শিক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করেন। এছাড়াও নারায়ণগঞ্জ কলেজে আরো ২ হাজার শিক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করেন।

অনুষ্ঠানে এমপি সেলিম ওসমান উপস্থিত শিক্ষার্থীদের মঞ্চে ডেকে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে কিছু বলার জন্য আহবান রাখেন। এ সময় বিভিন্ন স্কুলের শিক্ষার্থীরা বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে তাদের জানা সকল বক্তব্য তুলে ধরেন। এ সময় আলী নগর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একজন শিশু শিক্ষার্থী বঙ্গবন্ধু শেখ


মুজিবর রহমানের দেওয়া ঐতিহাসিক ৭মার্চের ভাষন মঞ্চে পরিবেশন করেন। ওই শিশুর ভাষনে মুগ্ধ হয়ে তাৎক্ষনিক পুরস্কার হিসেবে এমপি সেলিম ওসমানের সহ ধমির্নী মিসেস নাসরিন ওসমান তার গলায় পড়নে স্বর্ণের নেকলেসটি খুলে ওই শিশু গলায় পড়িয়ে দেন। এছাড়াও বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষ্যে উপজেলার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোতে আয়োজিত বিভিন্ন ইভেন্টে প্রতিযোগীতায় প্রথম দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থান অধিকারী সবাইকে মিসেস নাসরিন ওসমানের পক্ষ থেকে একটি করে মোবাইল ফোন পুরস্কার হিসেবে প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন, বন্দর থানা আওয়ামীলীগে সভাপতি এম এ রশিদ, জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের, বন্দর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা পিন্টু বেপারী, সিটি করপোরেশনের ২৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন আহম্মেদ দুলাল প্রধান, বন্দর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন, কলাগাছিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন প্রধান, ধামগড় ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মাসুম আহম্মেদ সহ অন্যান্যরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here