নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, বন্দর প্রতিনিধি: বন্দর উপজেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা পিন্টু বেপারী বেলেছেন, ১৯৮০ সালে র্মাকিন যুক্তরাষ্টে প্রথম কমিউনিটি পুলিশ গঠন করা হয়। এর পর থেকে বাংলাদেশেও এই কমিটি গঠন করা হয়। কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির দায়িত্ব হলো পুলিশ প্রশাসনকে তথ্যগতসহ বিভিন্ন ভাবে সাহায্য সহযোগিতা করা। সুন্দর সমাজ গঠনে কমিউনিটি পুলিশিং এর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ন। পুলিশ প্রশাসন ও কমিউনিটি পুলিশের দায়িত্ব থাকবে সমাজ থেকে চিরতরে জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদসহ স্ব স্ব এলাকাকে মাদক মুক্ত করা। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার জন্য আমাদের সোনার মাানুষ হিসেবে গড়ে উঠতে হবে। তিনি আরো বলেন, মিয়ানমার থেকে বিপুল হারে রোহিঙ্গারা আমাদের দেশে প্রবেশ করছে। তাদের প্রতি আমাদের নজর রাখতে হবে। তারা দেশের বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে পরছে। তারা যেন কোন ভাবে কোন স্থানে ছড়িয়ে যেতে না পারে সেদিকে আমাদের লক্ষ রাখতে হবে।

শনিবার সকাল ১১টায় কমিউনিটি পুলিশিং ডে/২০১৭ইং উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শোভযাত্রা ও পথ সভায় তিনি এ কথা বলেন।

বন্দর থানা প্রশাসন ও কমিউনিটি পুলিশিং স্মনয় কমিটি কর্তৃক আয়োজিত শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন বন্দর থানা কমিউনিটি পুলিশ এর সভাপতি খাইরুল বাসার ভূইয়া, সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন আনু, সহ-সভাপতি রশিদ কন্ট্রাটার, বন্দর থানার তদন্ত ওসি হারুন অর রশিদ, সেকেন্ড অফিসার মোখলেছুর রহমান, ১৯ নং ওয়াড কমিউনিটি পুলিশি এর সভাপতি কাউন্সিলর আলহাজ্ব ফয়সাল মোহাম্মদ সাগর, সাধারন সম্পাদক শিশির, ২০ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর গোলাম নবী মুরাদ, ২২ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা কাজী সহিদ, মহানগর জাপা নেতা শাহআলম, জাপা নেতা আজহারুল ইসলাম জিন্না, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি হাজী দেলোয়ার হোসেন প্রধান, সাধারন সম্পাদক জামান মেম্বার, ২১ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নাজমুল হাসান আরিফ, ১৯ নং ওয়ার্ডের জাপা নেত্রী পলি বেগম, অখিলউদ্দিন, জাতীয় দলের সাবেক ফুটবলার আমান উল্ল্যাহ আমান, সাবেক মহিলা কাউন্সিলর ইফরাত আরা মায়া, ধামগড় ইউনিয়নের সাবেক মহিলা মেম্বার রাবেয়া বেগম, জাপা নেতা হুমায়ন কবির এলিন, বাঘা শরিফ, নূর ইসলাম, ফজর আলী, মুছাপুর ইউনিয়নের মঞ্জু মেম্বার, ছিদ্দিকুর রহমানসহ স্থানীয় এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here