নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, বন্দর প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জ বন্দরে মায়ের সাথে অভিমান করে তানিয়া আক্তার (২১) নামের এক গৃহবধু কীটনাশক পানে আত্মহত্যা করেছে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে মালিভিটা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে। শ^শুর বাড়িতে যাচ্ছিল না বলে মা গালমন্দ করেছেন বলে তানিয়া আত্মহত্যা করে। নিহত তানিয়া আক্তার কামতাল গ্রামের কামাল হোসেনের মেয়ে।

কামতাল তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সেপেক্টর মোস্তাফিজুর রহমান জানান, দুই বছর আগে সোনারগাঁ উপজেলা পিরোজপুর ইউপি আষাড়িয়ার চর গ্রামের হাবিবুল্লাহ’র ছেলে সিরাজুল ইসলামের সঙ্গে তানিয়ার বিয়ে হয়। বিয়ের পর তানিয়ার স্বামী সিরাজ সৌদি চলে যায়। তার পর থেকে শ^শুর বাড়ির লোকজনের সঙ্গে তানিয়ার বনিবনা হচ্ছিল না। তানিয়া পিত্রালয়ে আসলে শ^শুর বাড়িতে না যাওয়ার জন্য নানা তালবাহানা করতো। এ নিয়ে বুধবার রাতে মা-মেয়ের সঙ্গে ঝগড়া হয়। এর জের ধরে মায়ের সঙ্গে অভিমান করে বৃহস্পতিবার দুপুরে কীটনাশক জাতীয় বড়ি খেয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে তানিয়া।

পরে তার পরিবারের লোকজন প্রথমে সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থা অবনতি দেখা দিলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন। হাসপাতালে নেয়ার পর ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

এ ব্যপারে বন্দর থানায় অপমৃত্যু মামরা হয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here