নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, বন্দর প্রতিনিধি: বন্দরে মানুষিক প্রতিবন্ধী (১৬)কে গণধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। পুলিশ ৪ জন ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে। ধর্ষকরা হলো মহিউদ্দিন লিমন (১৮), সজিব (১৮), ফয়সাল (২৯) ও মোকারম (২৯)। গত ৩ আগষ্ট সন্ধ্যায় বন্দরের নবীগঞ্জ লোহিয়া কোম্পানীর পাটের গুদামে নিয়ে গণর্ধষণ করে ধর্ষকরা। বিষয়টি স্থানীয় কতিপয় মাতাব্বররা সালিশের নামে ধমাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে ব্যার্থ হলে প্রতিবন্ধীর মা রিনা বেগম গত মঙ্গলবার রাতে থানায় মামলা দায়ের করে।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, বন্দরের নবীগঞ্জ ইসলামবাগ এলাকার নুরনবী মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া কাশেম মিয়ার প্রতিবন্ধী মেয়েকে খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে নোয়াদ্দা এলাকার সালাউদ্দিন মিয়ার ছেলে লম্পট লিমন তাকে নবীগঞ্জ লোহিয়ার পাটের গুদামে নিয়ে ধর্ষণ করে। এসময় একই কোম্পানীতে কর্মরত লম্পট সজিব, ফয়সাল মিলে তাকে গণধর্ষন করে।

এ কাজে সহযোগিতা করে লম্পট মোকারম। মোকারম ধর্ষণ করতে গেলে তার মেয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। এ ঘটনাটি এলাকার কয়েকজন সালিশ করে দেয়ার আশ্বাস দিয়ে তাৎক্ষনিক থানায় মামলা করতে দেয়নি। পরে বিষয়টি আরও জটিল আকার ধারণ করলে থানায় মামলা করেন। এ ব্যপারে বন্দর থানার ওসি আবুল কালম বলেন, ধর্ষণের এক সপ্তাহ পর থানায় এসে প্রতিবন্ধীর মা জানালে তাৎক্ষনিক মামলা নেয়া হয় এবং ধর্ষকদের গ্রেফতার করা হয়। ধর্ষণের শিকার প্রতিবন্ধী পুলিশের কাছে ধর্ষণের কথা স্বীকার করে। বুধবার দুপুরে পুলিশ ধর্ষকদের আদালতে পাঠালে আদালত তাদের জেল হাজতে পাঠায়।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here