নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, বন্দর প্রতিনিধি: বন্দরে ভোকেশনাল পরীক্ষায় উর্ত্তীর্ন মার্কশীট, প্রশাংসা পত্র প্রদানে শিক্ষার্থীদের কাছ অতিরিক্ত অর্থ আদায়ের অভিযোগ আলীম মাদ্রাসার সুপার ফয়সাল আহমেদের বিরুদ্ধে। অতিরিক্ত ৫ হাজার টাকা করে দিতে অনীহা শিক্ষার্থীদের মার্কশীট, প্রশাংসা প্রত্র আটকে দেয়ায় উচ্চ শিক্ষা গ্রহনে ভর্তি বিরম্বনায় পড়েছে।
শিক্ষার্থী মাকসুদুর রহমান জানান, উপজেলার ধামগড় ইউপি গকুলদাসেরবাগ এলাকায় অবস্থিত জামিয়া ইসলামীয়া আলীম মাদ্রাসা থেকে ২০১৭ সালে এসএসসি সমমান ভোকেশনাল (কারিগরি) শাখায় ৩৪ জন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রন করে। এর মধ্যে ৩০ জন উর্ত্তীর্ন হয়েছে। উর্ত্তীর্ন শিক্ষার্থীদের মধ্যে অন্যত্রে ভর্তিচ্ছুক মার্কশীট প্রশাংসা পত্র প্রদান নামের প্রত্যেকের কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা করে অতিরিক্ত ফি আদায় করে মাদ্রাসা সুপার ফয়সাল আহমেদ। অতিরিক্ত ফি দিতে অনীহা শিক্ষার্থীদের মার্কশীট প্রশাংসা পত্র দিচ্ছে না সুপার। মার্কশীট প্রশাংসা পত্র প্রদানে বিরম্বনায় কলেজে ভর্তি হতে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে একাধীক শিক্ষার্থী। একই অভিযোগ উর্ত্তীর্ন শিক্ষার্থী সনিয়া আক্তার ও নিপা আক্তারের। তারা নারায়ণগঞ্জ তোলারাম সরকারি বিশ^বিদ্যালয় কলেজে ভর্তির সুযোগ পেয়েও মার্কশীট প্রশাংসা পত্র প্রদান না করায় শিক্ষা গ্রহন অশ্চিতায় পড়ে।

মাদ্রাসা সুপার ফয়সাল আহমেদ অতিরিক্ত ৫ হাজার টাকা করে আদায় বিষয়টি অস্বীকার করে বলেন, মাদ্রাসা ম্যানেজিং কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক উর্ত্তীর্ন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ৫ শত টাকা নেয়া হচ্ছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার দেওয়ান মো. জাহাঙ্গীর জানান, মার্কশীট প্রদানের জন্য শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা অতিরিক্ত ফি আদায় করার সযোগ নেই। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here