নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: ইটপাথরের এই নগরে প্রকৃতি জুড়ে সেভাবে হয়তো দেখা মেলে না বসন্তের রঙিন হাওয়ার। কিন্তু সড়কের পাশে দন্ডায়মান লাল বর্ণে কৃষ্ণচূড়া গাছে ফুল দেখে যে কারোরই মনে হবে এসেছে বসন্ত।
আর বাসন্তী রঙা বসনে নগরবাসী বরণ করে প্রস্তুতি নিয়েছে রঙিন বসন্ত ও ভালাবাসা দিবসকে উদযাপনে। তাই তো বসন্ত আর ভালোবাসা এখন মিলেমিশে গেছে।

কারন, পয়লা ফাল্গুনের পরদিনই ভালোবাসা দিবস। তাই পোশাক–সাজে ফাগুন আর ভালোবাসার রঙের ছোঁয়া পাওয়া যায় একই সঙ্গে।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারী) বসন্ত দিবস। বসন্ত উৎসব উদযাপনে নগরীর চাষাড়াস্থ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোট। এছাড়াও বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে আয়োজন করা হয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের।

অপরদিকে, বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) উদযাপিত হবে বিশ্ব ভালবাসা দিবস। ভালোবাসার উৎসবে মুখর হবে জনপদ।

এই দিনটি ভালোবাসার জন্য আলাদা একটি দিন। ভালোবাসা প্রকাশের মধুর দিন। রৌদ্রকরোজ্জ্বল শুভ্র সকাল, রূপালী দুপুর, আর মায়াবী রাত-পুরো সময়টা কেবলই ভালোবাসার ক্ষণ। করতালে সুর তুলে তরুণ তরুনীদের ভালোবাসার গান গাইবার দিন।

বিশ্ব ভালবাসা দিবস উপলক্ষ্যে নগরীর বিভিন্ন বিনোদন কেন্দ্রে নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। খাবারের দোকান গুলোতে বিশেষ ছাড়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এদিকে, এই দুটি দিবসকে ঘিরে নগরীর বিভিন্ন স্থানে জমজমাট হয়ে উঠেছে ফুলের বেচাকেনা। বিশেষ করে গোলাপ ফুল কিনতে ভীড় পরিলক্ষিত হয়েছে দোকান গুলোতে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here