নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নাশকতার মামলার আসামী হওয়ায় বহিস্কার হতে যাচ্ছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের বিএনপি পন্থী ৮ কাউন্সিলর বলে গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।
কেননা অতীতেও দেখাগেছে, ফৌজদারী মামলার আসামী হওয়ার অপরাধে কাউন্সিলর খোরশেদ, শাহজালাল বাদল, হান্নান সরকার, সুলতান মাহমুদসহ বেশ কয়েকজন কাউন্সিলরকে বহিস্কার করেছিল স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।

আর তাই এবার সদ্য সরকার বিরোধী উৎখাতের ষড়যন্ত্র ও বিস্ফোরক আইনে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৮ কাউন্সিলর আসামী হওয়ায় এখন গ্রেফতার ও পলাতকদের মধ্যে নতুন করে বহিস্কার আতংকও বিরাজ করছে বলে জানান, তাদের ঘনিষ্টজনেরা।

জানাগেছে, গত ৮ ফেব্রুয়ারী বিএনপি চেয়ারপার্নন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়েরকৃত জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায় ঘোষণাকে কেন্দ্র করে নাশকতার অভিযোগে গত ৩ ফেব্রুয়ারী সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় নাসিক ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইকবাল হোসেন ও নাসিক ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম সাদরিলের নামে মামলা দায়ের করা হয়।

৪ ফেব্রুয়ারী সদর মডেল থানায় দায়েরকৃত একটি নাশকতার মামলায় নাসিক ৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ই¯্রাফিল প্রধানকে গ্রেফতার করা হয় এবং ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদকে আসামী করা হয়।

বন্দর থানার দু’টি মামলায় ২০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম নবী মুরাদ ও ২৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুজ্জামান বাবুলকে গ্রেফতার করা হয়। পাশাপাশি আসামী করা হয়, ৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর গোলাম মোহাম্মদ সাাদরিল, ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ, ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলহাজ্ব হান্নান সরকার, ২২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সুলতান উদ্দিন ভূইয়া ও ২৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর এনায়েত হোসেনকে।

এছাড়াও ফতুল্লা মডেল থানায় নাশকতার অভিযোগে নাসিক ১৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও মহানগর যুবদল আহ্বায়ক মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদকে প্রধান আসামী করে মামলা দায়ের করে পুলিশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here