নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: যত্রতত্র পার্কিং ও মৌসুমী ব্যবসায়ীদের কারনে যানজটমুক্ত করা যাচ্ছে না নারায়ণগঞ্জকে। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত দফায় দফায় নগরীর গুরুত্বপূর্ণ বেশ কিছু সড়কে যানজট লেগেই থাকে। তারমধ্যে থেমে থেমে বৃষ্টি যেন নগরবাসীর দূর্ভোগ আরো বাড়িয়ে দিয়েছে।
জেলা প্রশাসন, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ও নারায়ণগঞ্জ ট্রাফিক বিভাগ যানজট নিরসনে নানা উদ্যোগ নিলেও তার সুফল পাওয়া যাচ্ছে না। প্রতিদিনই যানজটে পরে নাজেহাল হতে হচ্ছে নগরবাসীকে। আর তাই যানজটের অভিশাপ থেকে মুক্তি পেতে স্থায়ী ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানিয়েছেন তারা।

বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, একদিকে বৃষ্টি, অপরদিকে দীর্ঘ যানজটের কারনে নাকাল হয়ে গেছে নগরবাসী।

শহরের গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টগুলোতে প্রতিদিনের ন্যায় যানজটের দীর্ঘ লাইন। শুধু সড়কে নয় অলিগলিতেও জট বেঁধেছে যানবাহন। শহরের ব্যস্ততম ষড়কগুলির মধ্যে নিতাইগঞ্জ থেকে চাষাঢ়া, চাষাঢ়া থেকে খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতাল ও পঞ্চবটি থেকে চাষাঢ়া সড়কে সকাল থেকেই যানজট প্রকট আকার ধারন করছে। পাঁচ মিনিটের পথ অতিক্রম করতে প্রায় আধ ঘন্টা লেগে যাচ্ছে। এতে করে কর্মজীবী মানুষের মূল্যবান সময় নষ্ট হচ্ছে আর প্রচন্ড গরমের কারনে যানজটে বসে থাকতে গিয়ে অসুস্থ্য হয়ে পরছেন অনেকে।

এ ছাড়াও আসন্ন শারদীয় দূর্গেৎসব উপলক্ষে কেনাকাটাকে কেন্দ্র করে প্রতিদিন যানজটের ভোগান্তি সহ্য করতে হচ্ছে নগরবাসীকে। পূজার শপিং মানে আনন্দ কিন্তু রাস্তায় নামলেই অসহনীয় যানজটে আটকে শপিংয়ের আনন্দ ম্লান হয়ে যাচ্ছে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের।

যানজট নারায়ণগঞ্জবাসীর নিত্য সমস্যা হলেও এর কোন প্রতিকারের উদ্যোগ নেই কর্তা ব্যক্তিদের। বিভিন্ন সভা সমাবেশে এ সমস্যা নিরসনের লক্ষ্যে বড় বড় গালভরা বুলি শোনা গেলেও কার্যত কোন প্রতিফলন ঘটছে না। ফলে দিনকে দিন এই সমস্যা প্রকট আকার ধারন করছে।

নারায়ণগঞ্জ শহরে যানজটের প্রধাণ কারন যত্রতত্র গড়ে উঠা অবৈধ পরিবহন ষ্ঠ্যান্ড উচ্ছেদে নেই কোন বাস্তবসম্মত উদ্যোগ। নগরবাসীর দীর্ঘদিনের দাবী চাষাঢ়া ও ২নং রেল গেইটে দুটি ফুট ওভার ব্রিজ নির্মাণ করার কথা ঘোষনা করা হলেও তা এখনও আলোর মুখ দেখেনি। ফুটপাতের হকার আর অবৈধ পরিবহন ষ্ট্যান্ড উচ্ছেদে রাজনীতিবীদদেও মাঝে কাঁদা ছোড়াছুড়ি হলেও তার বাস্তবায়ন এখনও সম্ভব হয়নি। ফলে যানজটের কবল থেকে মুক্তি মিলছে না নগরবাসীর।

যানজটে আটকে থাকা জনৈক বেসরকারী চাকুরীজীবী ক্ষেভের সঙ্গে নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে বলেন, যানজট সমস্যা নারায়ণগঞ্জবাসীর জন্য নতুন কিছু না। প্রশাসনের পক্ষ থেকে এই সমস্যা সমাধানে স্থায়ী কোন পদক্ষেপই নেয়া হচ্ছে না। আমাদের মতো সাধারণ মানুষের সময়ের কোন মূল্যই নেই প্রশাসনের কাছে।

এ সময় আরেক ভুক্তোভোগী পথচারী নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে বলেন, শহরে কোন ভিআইপি লোক এলে পুরো শহর যানজট মুক্ত করে ফেলা হয়। উঠিয়ে দেয়া হয় অবৈধ পরিবহন ষ্ট্যান্ড। কিন্তু তারা চলে গেলে আবার সেই পুরানো রূপেই ফিরে যায় নগরীর রাস্তাঘাট। ভিআইপিদের সময়ের দাম আছে, আমাদের সময়ের কোন দাম নেই প্রশাসনের কাছে। প্রতিদিন এই সড়কে যানজটে বসে থেকে আমাদের মূল্যবান সময় নষ্ট হচ্ছে, অথচ এই সমস্যার কোন সঠিক সমাধান হচ্ছে না।

অপর এক নগরবাসী আক্ষেপ করে বলেন, শহরের জলাবদ্ধতা নিরসনে এবং যানজট দুর করতে সমন্বিত কোন উদ্যোগ আজো চোখে পরেনি। রাজনৈতিক নেতারা এটাকে ইস্যু হিসেবে নিয়ে যে যার মতো ব্যবহার করছেন, কিন্তু সমাধানের উদ্যোগ কেউ নিচ্ছে না। আমাদের ভোগান্তি দেখার কি কেউ নেই!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here