নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মঈনুল হক বলেছেন, আমি কোন চাঁদার টাকা খাই না। আমি মনে করি, আমার পুলিশ প্রশাসনের কেউ চাঁদার টাকা খায় না। তারপরও আপনাদের কারো কাছে যদি প্রশাসনের লোকদের চাঁদাবাজির খবর থাকে, তাহলে আমাকে বলবেন, ধরে মামলা দিয়ে জেলে ভরে দেবো। পরিবহন নেতাদের বলবো, আপনাদের যদি কোন প্রকার লেনদেন থাকে, তবে অফিসে বসে করবেন। রাস্তায় গাড়ি থামিয়ে কেউ যদি টাকা তোলে, তাহলে আমি সংশ্লিষ্ট থানার ওসিকে বলবো, সাথে সাথে ধরে চাঁদাবাজির মামলা দিয়ে চালান করে দিবেন।

আসন্ন পবিত্র মাহে রমজান ও ঈদুল ফিতর উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জের আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে মত বিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

শনিবার (২৭ মে) সকালে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সভাকক্ষে এই মত বিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

পুলিশ সুপার মঈনুল হক আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জের সাথে আমার আত্মার সম্পর্ক। আমি আগে বহুবার নারায়ণগঞ্জে এসেছি। কিন্তু এতো পরিমান সমস্যা কোথাও দেখি নাই। এই সমস্যাগুলো মনুষ্য সৃষ্ট। আর আমরাই এই সমস্যাগুলো সৃষ্টি করে থাকি। এর জন্য আমরা নিজেরাই দায়ী। এগুলো সমাধানও করতে হবে আমাদেরই। তাই আমরা যার যার অবস্থান থেকে চেষ্টা করে যাবো।

তিনি বলেন, বর্তমানে নারায়ণগঞ্জের গার্মেন্টস মালিক শ্রমিক একটা সহনশীল সম্পর্ক বিরাজমান। আসন্ন রমজান ও ঈদুল ফিতরেও এই ধারা অব্যাহত থাকবে বলে আমি বিশ^াস করি। গার্মেন্টসে ঈদ উপলক্ষে বড় ধরনের লেনদেনে পুলিশের সহায়তা দেয়া হবে। রোজার সময়ে গার্মেন্টসগুলো যাতে এক সময়ে ছুটি না দিয়ে পর্যায়ক্রমে দেয়া হয়, যাতে করে সড়কে যানজটের সৃষ্টি না হয়। এছাড়া অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে নিরাপত্তার স্বার্থে সিসি ক্যামেরার ব্যবস্থা করবেন। ঈদ যেমন আমার আপনার তেমনি চোর বাটপারদেরও। তারাও এই সময়টাতে সক্রিয় থাকে বেশী। তাই পুলিশ প্রশাসন থেকে সচেতনতামূলক প্রচারনার ব্যবস্থা করা হয়েছে।


এসপি বলেন, ব্যাটারী চালিত ইজিবাইক নিয়ে আমরা খুবই বিব্রতকর অবস্থায় রয়েছি। সারা দেশে আড়াই কোটি কোটি মানুষ ইজিবাইকের সাথে সম্পৃক্ত। এটাকে পুরোপুরি বন্ধও করা যাচ্ছে না। তাই ইজিবাইক মহাসড়কে না চালিয়ে ফিডার সড়কগুলোতে চালানোর আহবান জানাচ্ছি।

ফুটপাতের হকারদের বিষয়ে পুলিশ সুপার বলেন, ফুটপাত ছেড়ে তারা যাতে কেউ রাস্তার উপড়ে না বসে। আর এই বসানো বা উঠানোর কারনে যাতে কোন অর্থনৈতিক লেনদেন না হয়, সে বিষয়ে সংশ্লিষ্ট থানার ওসিকে নজর রাখার নির্দেশ দিচ্ছি। বিভিন্ন বেকারী বা খাবারের দোকান যাতে তার সামনের রাস্তায় প্যান্ডেল টানিয়ে ইফতার বিক্রি করতে না পারে সে ব্যাপারে কঠোর হওয়ার নির্দেশনা দেওয়া হলো। টেলিফোনে চাঁদাবাজির বিষয়ে ব্যবসায়ীদের আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। কারন এর ৯৯ ভাগই ভূয়া। তারপরও কোন ব্যবসায়ীর কাছে টেলিফোনে চাঁদা চাওয়া হলে আমাদেরকে জানাবেন। আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবো। রমজান মাসে যানজট নিরসন ও সার্বিক নিরাপত্তার জন্য পুলিশের পাশাপাশি কমিউনিটি পুলিশের ব্যবস্থা করবেন। নারায়ণগঞ্জ চেম্বার, বিকেএমইএ ও ব্যবসায়ী নেতারা মিলে এর ব্যয় বহন করবেন।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে জঙ্গিবাদ একটা বড় সমস্যা। আমাদের কাছে গোয়েন্দা তথ্য আছে, ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও গাজিপুরে জঙ্গি আস্তানা থাকার সম্ভাবনা ব্যাপক। তাই এদের বিষয়ে সবাইকে একটু সচেতন হতে হবে। আমাদের আশেপাশের বাড়িগুলোর প্রতি আমরা একটু বাড়তি নজরদারী রাখবো। জঙ্গিদের বাড়িগুলো তারা দূর্গের মতো করে রাখে। দরজা জানালা বন্ধ করে এবং আশেপাশের মানুষের সাথে কোন প্রকার সম্পর্ক রাখে না। এ রকম সন্দেহজনক কোন কিছু নজরে এলেই আমাদেরকে জানাবেন। আসন্ন পবিত্র মাহে রমজান ও ঈদুল ফিতরে নারায়ণগঞ্জের সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচারিত কোন প্রকার গুজবে কান দেবেন না। কলিং বেল পার্টি, অজ্ঞাণ পার্টি সক্রিয় থাকবে এ সময়ে। তাই এদের থেকে সাবধান থাকবেন। প্রতিটি মার্কেটের সামনে সিসি ক্যামেরার ব্যবস্থা করবেন। মার্কেটে নারীরা যাতে নির্বিঘেœ কেনাকাটা করতে পারে, সে বিষয়ে খেয়াল রাখবেন। প্রতিটি মার্কেটে অগ্নি নির্বাপণ ব্যবস্থা সচল রাখবেন। আপনি আমি সকলে সচেতন হলে দুর্ঘটনা রোধ করা সম্ভব।

এ সময়ে আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান, (অপরাধ) মতিয়ার রহমান, (ডিএসবি) ফারুক হোসেন, (ট্রাফিক) আব্দুর রশিদ, নারায়ণগঞ্জ জেলা আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের কৌসুলী এড. ওয়াজেদ আলী খোকন, বিকেএমইএ’র প্রথম সহ-সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম আলী, বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্টস এসোসিয়েশনের সভাপতি এম সোলেয়মান, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সভাপতি খালেদ হায়দার খান কাজল, জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রম কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ¦ কাউসার আহম্মেদ পলাশ, সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান, ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামাল উদ্দিন, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শরীফউদ্দিন সবুজ, মহানগর কমিউনিটি পুলিশের সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, সিটি বন্ধন পরিবহনের এমডি আলহাজ¦ আইয়ুব আলী, নারায়ণগঞ্জ জেলা ট্রাক কভার্ড ভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মাসুদুর রহমান মানিক প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here