নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: সদর উপজেলার ফতুল্লার পূর্ব ইসদাইর এলাকার ভূমিদস্যু ও মামলাবাজ কাশেম গংদের মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে নগরীতে মানববন্ধন করেছে এক মুক্তিযোদ্ধার পরিবার।
রবিবার (৮ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৯টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব মিয়লনায়তনের সামনে প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা বাকের আলী ভূইয়ার মেয়ে ফারজানা আক্তার পলি এই মাববন্ধনের আয়োজন করেন।

ভূক্তভোগী ফারজানা আক্তার পলি একটি লিখিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, সদর উপজেলার ফতুল্লা থানার পূর্ব ইসদাইর এলাকার রসুলবাগ এলাকার বাসিন্দা সে। দীর্ঘ ৩০ বছর যাত সেখানে বসবাস করছে তারা। একই এলাকার ভূমিদস্যু হাজী কাশেম গংরা তাদের বাড়িটি দখল করে নেওয়ার পায়তারা দীর্ঘদিন ধরে করে আসছে। তার বাড়ির কাজ করার সময় গত ১০ মার্চ কাশেম গংরা লোকজন নিয়ে তাদের বিনা কারনে গালিগালাজ ও হুমকি প্রদান করেন। পরবর্তীতে এরই জের ধরে গত ১৬/০৪/২০১৭ ইং তারিখে ভূমিদস্যু কাশেম গংদের প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপার, ভূমিমন্ত্রী, ফতুল্লার ভারপ্রাপ্ত ইউপি চেয়ারম্যান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার, স্থানীয় ইউপি মেম্বার বরাবরে একটি লিখিত পত্র প্রদান করেন তিনি।

তিনি আরো জানান, ভূমিদস্যু কাশেম গংরা চলতি বছরে তাকে তার স্বামী, ভাসুর ও দেবরকে আসামী করে ৫টি মিত্যা মামলা দায়ের করেন। বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট আদালত নারায়ণগঞ্জে পিটিশন মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ৪১৪/১৭, ৪৪১/১৭, ১৭৭/১৭, বিজ্ঞ ২য় যুগ্ন জেলা জজ আদালতে দেওয়ানী মামলা নং-২১৩/১৭, মানি মোকদ্দমা মামলা নং-১৫/১৭ দায়ের করেন। ভূমি দস্যু কাশেম গংরা এলাকার নিরহ লোকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দায়ের করে তাদের জমিজবর দখলের পাঁয়তারা করেন। অতীতে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগ এক নেতার বিরুদ্ধেও একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেছিল এই ভূমিদস্যুরা বলে জানান তিনি।

এ সময় তিনি অভিযোগ করে আরো জানান, এই মিথ্যা মামলার কারনে অর্থনৈতিক ভাবে তিনি ক্ষতিগ্রস্থ্য হয়ে পড়েছেন। প্রশাসনের নিকট কোন প্রকার সহযোগিতা না পেয়ে একজন মুক্তিযোদ্ধিার সন্তান হয়েও তিনি চরম নিরাপত্তাহীনতায় দিন যাপন করছেন। এই মানববন্ধনের ৫দিনের মধ্যে কোন সহযোগিতা না পেলে তিনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সামনে এ বিষয়ে মানববন্ধন করতে বাধ্য হবে বলে জানান।

নিলুফা বেগমের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, মুক্তিযোদ্ধা বাকের আলীর স্ত্রী, লাকি আক্তার কণা, ফারজানা আক্তার পলি, নূর আলম ভুইয়ার ছেলে, মতিন মোল্লার জামাতা, ফেরদৌস মোল্লার ছেলে সহ তাদের আতœীয় স্বজনরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here