নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, ফতুল্লা প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ভ্যালেন্টাইন ডে উপলক্ষে ঘুরাফেরা শেষে বাড়ি ফেরার পথে বুড়িগঙ্গায় ডুবে রাকিবুল ইসলাম শান্ত (১৮) নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থী নিহত হয়েছেন।
বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারী) বিকেল সাড়ে ৪ টায় ফতুল্লার পাগলা এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীতে এ ঘটনা ঘটে।

সংবাদ পেয়ে পাগলা কোস্টগার্ড স্টেশনের সদস্যরা ঘন্টাব্যাপী অভিযান চালিয়ে বিকেল সাড়ে ৫টায় বুড়িগঙ্গা থেকে শান্তর মৃতদেহ উদ্ধার করে।

এদিকে, নিহত শান্তর মায়ের অভিযোগে শান্তর সাথে থাকা তার ৪ বন্ধুকে আটক করেছে নৌ পুলিশ। নিহত শান্ত ফতুল্লার পাগলা নয়ামাটি এলাকার মিলন মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়া শফিকুল ইসলাম রতনের ছেলে। শান্ত পাগলা উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এবছর এসএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে।

আটককৃতদের মধ্যে তিনজন এসএসসি পরীক্ষার্থী। শান্তর মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

আটককৃতরা হলো, ফতুল্লার পাগলা নয়ামাটি এলাকার আবুল বাশারের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী রুবেল, একই এলাকার হাকিম হাওলাদারের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী সজিব, আমির হোসেনের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী মেহেদী হাসান শুভ ও একই এলাকার মোখলেছের ছেলে ওয়ার্কসপের শ্রমিক রাব্বি।

আটককৃতদের বরাত দিয়ে পাগলা নৌ পুলিশ ফাঁড়ির উপ পরিদর্শক (এসআই) ফরহাদ আলম জানান, শান্ত তার চার বন্ধুর সাথে বাড়ি থেকে বুড়িগঙ্গা নদীর ওপারে কেরানীগঞ্জের পানগাঁও এলাকায় ভালোবাসা দিবস উপলক্ষে ঘুরতে যায়। সেখানে আনন্দ ও ঘুরাফেরা শেষে বাড়ি ফেরার পথে একটি ট্রলারে বিকেল সাড়ে ৪ টায় বুড়িগঙ্গা নদী পার হওয়ার সময় মাঝ নদীতে শান্ত ট্রলার থেকে পড়ে পানিতে ডুবে যায়। তবে নিহতের মায়ের অভিযোগে ৪ জনকে আটক করা হয়েছে।

ঘটনাটি তদন্ত চলছে এবং ময়না তদন্ত রিপোর্টে মৃত্যুর কারন জানা যাবে বলে জানান তিনি।

তবে শান্তর বন্ধুদের দাবী অস্বীকার করে শান্তর মা আসমা বেগম বলেন, শান্তকে পরিকল্পিত ভাবে নদীতে ধাক্কা দিয়ে পানিতে ফেলে হত্যা করেছে তার বন্ধুরা। আমি এর বিচার চাই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here