নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: মঞ্চের পিছনে একদিকে শোকের মাতম আর অন্যদিকে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর নামে জনসভা আর আনন্দ উল্লাসের মাধ্যমে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উদযাপন। এমন দৃশ্য দেখে হতবাক হয়ে গেছেন সাধারন নগরবাসী।

বুধবার (২৫ অক্টোবর) বাদ আছর শহরের ডিআইটি জামে মসজিদের সামনের রাস্তায় বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক হকি খেলোয়ার খাঁজা রহমতউল্লাহর জানাজা নামাজের যখন প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন শোকার্ত নারায়ণগঞ্জবাসী, ঠিক সেই সময়ে জানাযা স্থলে সামনে জাসদের ৪৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর আয়োজিত জনসভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলে উচ্চস্বরে। তখন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিতও ছিলেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু এমপি।

অনুষ্ঠানে সভাপত্বি করেন জেলা জাসদের সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুস সাত্তার।

সাধারন সুমল্লিরা যখন ডিআইটি মসজিদের সামনে দাঁড়িয়ে নিহত খাঁজা রহমতউল্লাহর জানাজার নামাজ পরার প্রস্তুুতি নিচ্ছিলেন তখনও চলছিল জেলা জাসদের জনসভা। এ সময় মাইক ও সাউন্ড সিষ্টেমটি বন্ধ করা হয়নি। উচ্চস্বরে বাজছিল মাইক। পরবর্তীতে জানাযা নামাজে অংশ নেয়া মুসল্লিরা মসজিদের মাইকের মাধ্যমে জাসদ নেতৃবৃন্দদের উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা কিছু সময়ের জন্য মাইকগুলো একটু বন্ধ রাখুন। পরে তারা মাইক বন্ধ করে দেন।

জানাযা নামাজের শুরুর কথা মাইকে ঘোষনা করা হলেও জেলা জাসদের সভাপতি আলহাজ্ব আব্দুস সাত্তারকে মঞ্চে তথ্যমন্ত্রী হাসুনুল হক ইনুর পাশে বসে থাকতে দেখা যায়। প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে এরপর মাগরিবের আযান শেষ হতে না হতেই শুরু হয় জমজমাট গানের কনসার্ট। বিষয়টি নিয়ে উপস্থিত সাধারন জনতা আলোচনা আর সমালোচনা করতে থাকেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here