নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সাংসদ এড. আবুল কালাম নেতাকর্মীদের আহবান করে বলেন, বিভাজন নয় দলের স্বার্থে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। এই সরকার জানে তত্বাধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দিলে তাদের অস্তিত্ব থাকবে না। তাই মনে রাখতে হবে সোজা আঙ্গুলে এই সরকারের ঘি উঠবে না। আমরা কেন্দ্রীয় নেতাদের নির্দেশের অপেক্ষায় থাকবো না দেশ ও দলের স্বার্থে বিগত দিনের মত রাজপথে থাকবো। কারন আন্দোলন ছাড়া সুষ্ঠ নির্বাচন হবে না।

সোমবার (১৫ জানুয়ারী) কালিরবাজারস্থ মহানগর বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে কর্মী সম্মেলনকে সফল করার জন্য সভাপতির বক্তব্যে যৌথ সভায় তিনি একথা বলেন।

মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এড. আবু আল ইউসুফ খান টিপুর সঞ্চালনায় এ যৌথ সভায় বক্তব্য রাখেন, সংগঠনের সহ-সভাপতি এড. জাকির হোসেন, এড. হুমায়ুন কবির, ফখরুল ইসলাম মজনু, আতাউর রহমান মুকুল, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সবুর খান সেন্টু, দপ্তর সম্পাদক হান্নান সরকার, মহানগর বিএনপি নেতা এড. আনিছুর রহমান মোল্লা, আনোয়ার হোসেন আনু, হাজী ফারুক হোসেন, নজরুল ইসলাম সরদার, মহানগর যুবদলের যুগ্ম-আহবায়ক সরকার আলম, মহানগর শ্রমিক দলের সদস্য সচিব আলী আজগর, স্বেচ্ছা সেবক দল নেতা মোস্তাক আহম্মেদ প্রমূখ।

এ সময় তিনি আরও বলেন, দেশে কোন মানবাধিকার নাই, বিচার ব্যবস্থাকে নিয়ন্ত্রন করা হচ্ছে, জনগনের ভোটের অধিকার ছিনিয়ে নিয়েছে। এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করায় বিএনপি নেতারা সরকারের মিথ্যা মামলা-হামলা, নির্যাতনের শিকার হয়েও দলকে ছেড়ে যায়নি। কারন যারা বিএনপি করে তারা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আর্দশের সৈনিক।

এ সময় তিনি নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আগামী ২০ জানুয়ারী আমাদের কর্মী সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। সেখানে কেন্দ্রীয় নেতারা উপস্থিত হয়ে মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক অবস্থান সর্ম্পকে খোজ খবর নিবে। এই দিন মহানগর বিএনপি ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা বন্দর হেভীন কমিনিউটি সেন্টারে উপস্থিত হয়ে নিজের অবস্থানের জানান দিবেন। বেলা ২ টায় আমাদের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। যারা নেতৃত্ব স্থানে আসতে চান তারা নিজেদের ব্যানার ফেষ্টুন নিয়ে সম্মেলনে উপস্থিত হবেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলো, বিএনপি নেতা আরিফ আহম্মেদ গোগা, মহানগর শ্রমিক দলের যুগ্ম-আহবায়ক ফজলুল হক, নুর মোহাম্মদ, হারুন শেখ, মহানগর স্বেচ্ছা সেবক দলের নেতা মাকিদ মোস্তাকিম শিপলু সহ বিভিন্ন ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন বিএনপি এবং সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here