নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে যাত্রাপথে স্বাগত জানানোর ক্ষেত্রে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের দেয়া নির্দেশনা অমান্য করলেন নারায়ণগঞ্জ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দরা।

মহাসচিবের কড়া নির্দেশনা ছিল, ‘খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানানোর জন্য ব্যানারে শুধুমাত্র জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের ছবি ব্যাতীত অন্যান্য কোন নেতাদের ছবি ও নাম ব্যবহার কেরা যাবে না।’ কিন্তু তা মানেনি নারায়ণগঞ্জ বিএনপির শীর্ষ নেতৃবৃন্দরা।

শনিবার (২৮ অক্টোবর) সকাল ১১ টায় কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনের উদ্দেশ্যে গুলশান থেকে যাত্রা শুরু করেন বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া।

তাই বিএনপি চেয়ারপার্সনকে যাত্রাপথে স্বাগত জানাতে সকাল থেকেই ব্যানার ফেস্টুন নিয়ে মহাসড়কের দু’ধারে জড়ো হন আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী এমপি পদ প্রার্থী, জেলা বিএনপি, মহানগর বিএনপি, যুবদল, স্বেচ্ছা সেবকদল, ছাত্রদল, মহিলা দলসহ অঙ্গসংগঠনের হাজার হাজার নেতাকর্মী।

দুপুর সোয়া ১২ টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক হয়ে খালেদা জিয়ার গাড়ী বহর যাওয়ার সময় নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড মোড় থেকে চিটাগাং রোড, মদনপুর, সোনারগাঁ চৌরাস্তা, রূপগঞ্জ, আড়াইহাজার থানাধীন মহাসড়ক পর্যন্ত খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানান নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দরা। এসময় খালেদা জিয়াও গাড়ীর ভিতরে থেকে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে হাত নেড়ে ধন্যবাদ জানান।

কিন্তু দেখাগেছে, খালেদা জিয়াকে স্বাগত জানানোর লক্ষ্যে মহাসচিবের নির্দেশনা অমান্য করেই মহানগর বিএনপির ব্যানারে মহানগর বিএনপির সভাপতি এড. আবুল কালাম, মহানগর যুবদলের ব্যানারে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা এড. তৈমূর আলম খন্দকারের, সিদ্ধিরগঞ্জের মৌচাকে মহানগর ছাত্রদলের আহ্বায়ক মনিরুল আলম সজলের নেতৃত্বে কেন্দ্রীয় বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদের, মহানগর বিএনপির ব্যানারে মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খানের, কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান দিপু ভূইয়ার নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছা সেবকদলের শো ডাউনে ফেস্টুনে তারেক রহমানের সাথে দিপু ভূইয়ার, জেলা বিএনপির ব্যানারে সোধারন সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদের, মহানগর মহিলা দলের শো ডউনে রহিমা শরীফ মায়ার ছবি ব্যবহার করা হয়েছে।

এছাড়াও বিকল্প উপায়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার দৃষ্টি আকর্ষণের লক্ষ্যে দলীয় নেতাকর্মীদের দিয়ে নিজেদের ছবি সম্বলিত ‘প্ল্যাকার্ড’ ব্যবহার করেছেন আগামী সংসদ নির্বাচনে নারায়ণগঞ্জ জেলাধীন সংসদীয় ৫টি আসনের ‘ধানের শীষ’ মনোনয়ন প্রত্যাশী সম্ভাব্য এমপি প্রার্থীরা।

উল্লেখ্য, এরআগে বিএনপি চেয়ারপার্সনের কক্সবাজার যাত্রা উপলক্ষ্যে সড়কপথে তাকে স্বাগত জানানোর লক্ষ্যে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দদের গত ২৫ অক্টোবর বিকেলে ঢাকায় তলব করে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদান করেন মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সেদিন তিনি জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দদের স্বাগত জানানোর লক্ষ্যে ব্যানার ফেস্টুনে জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া, তারেক রহমানের ছবি ব্যাতীত স্থানীয় কোন নেতৃবৃন্দের নাম ও ছবি না দেয়া নির্দেশনা দিয়েছিলেন।

যা রীতিমত অমান্যই করেছেন বিএনপির শীর্ষ নেতৃবৃন্দরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here