নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানাধীণ মাসদাইর পতেঙ্গার মোড় এলাকা মাদক ব্যবসায়ীদের অভয়ারণ্যে পরিনত হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে এলাকাবাসী। মাদক ব্যবসায়ীদের ভয়ে এখানে সাধারণ মানুষ মুখ খুলতেও সাহস পাচ্ছে না। আর যারা এই মাদক ব্যবসায় বাঁধা দিচ্ছেন তাদেরকে নানাভাবে হুমকি দিয়ে থামিয়ে দেয়া হচ্ছে বলেও জানা গেছে। মাদক ব্যবসায়ীদের প্রতিরোধে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গকে নিয়ে মাদক নির্মূল কমিটি গঠন করা হলেও তা কোন কাজে আসছে না বলে জানিয়েছেন তারা। এমনকি এই কমিটির একজন যুগ্ম আহবায়ক মাদক ব্যবসায়ীকে ধরিয়ে দেয়ায় তাকেও প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিচ্ছে মাদক ব্যবসায়ীরা। প্রাণের ভয়ে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে সে যুগ্ম আহবায়ক বজলুর রহমান বৃহস্পতিবার জেলা পুলিশ সুপার বরাবর লিখিথ অভিযোগ দায়ের করেছেন এবং শুক্রবার (৩ মার্চ) ফতুল্লা মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন। আর তাই ভুক্তভোগী পতেঙ্গা এলাকাবাসী মাদক নির্মূলে স্থানীয় সাংসদ একেএম শামীম ওসমানের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, নারায়ণগঞ্জের শিল্পাঞ্চল খ্যাত এলাকা ফতুল্লার অত্যান্ত জন বসতিপূর্ণ এলাকা মাসদাইর পতেঙ্গার মোড়। আর এর সুযোগ নিয়ে স্থানীয় মাদক স¤্রাজ্ঞি জমিলা ও তার ছেলে রবি মাদকের এক বিশাল নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছে পতেঙ্গার মোড় এলাকায়। স্থানীয় জনগন অতিষ্ঠ হয়ে বেশ কয়েকবার জমিলা ও রবিকে পুলিশে ধরিয়ে দিলেও অদৃশ্য ইশারায় তারা বের হয়ে এসে পুনরায় তাদের অপকর্ম শুরু করে। আর তাদেরকে ধরিয়ে দিতে যারা সহায়তা করেছিলো, তাদেরকে নানাভাবে হুমকি দিয়ে থামিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। অবশেষে গত বছরের মাঝামাঝি সময়ে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের সমন্বয়ে মাদক নির্মূল কমিটি গঠন করা হয়। এ কমিটির আহবায়ক করা হয় বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফাকে আর যুগ্ম আহবায়ক করা হয় বজলুর রহমানকে। কমিটি গঠন হওয়ার পর তারা সম্মিলিতভাবে মাদক ব্যবসায়ীদের প্রতিরোধের ঘোষনা দিলেও তার বাস্তব প্রতিফলন দেখতে পায়নি এলাকাবাসী। কমিটির যুগ্ম আহবায়ক বজলুর রহমান নিজ উদ্যোগে কিছু যুব সমাজকে নিয়ে মাদক ব্যবসায়ী জমিলা, তার পুত্র রবিসহ মাদক ব্যবসার নেটওয়ার্কে জড়িত কয়েকজনকে পুলিশে ধরিয়ে দিলে এখন তার উপরও নেমে এসেছে নানা ধরনের হুমকি। এমনকি বজলুর রহমানকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকিও দিচ্ছে মাদক ব্যবসায়ীরা। আর তাই বাধ্য হয়ে জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে প্রশাসনের দ্বারস্থ হয়েছেন বজলুর রহমান। মাদক নির্মূল কমিটির লোকজনেরই জীবনের নিরপত্তা হুমকির মুখে থাকায় ভীত সন্ত্রস্ত হয়ে পরেছেন এলাকাবাসী। আর তাই এলাকা থেকে মাদক নির্মূলের জন্য স্থানীয় সাংসদ একেএম শামীম ওসমানের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তারা।

এ বিষয়ে স্থানীয় মাদক নির্মূল কমিটির আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে বলেন, মাদক নির্মূলে আমরা বেশ কয়েকটা মিটিং করেছি, জনগনকে সচেতন করেছি। কিন্তু স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী জমিলা খুবই ভয়ঙ্কর। ইনডাইরেক্টলি প্রশাসনও তাকে ফেবার করে। তাই তার বিরুদ্ধে কিছু করা যাচ্ছে না। আমাদের কমিটির যুগ্ম আহবায়ক বজলুর রহমানকে সে হুমকি দিয়েছে। সে জেলা পুলিশ সুপার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছে। আমরা মাদক নির্মূল কমিটির পক্ষ থেকে বিষয়টি লিখিতভাবে আমাদের স্থানীয় সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানকে জানাবো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here