নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি: সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় শেখ মোরতোজা আলী উচ্চ বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটি বাতিলের দাবিতে মানববন্ধন করতে এসে স্থানীয় দেখে পালিয়ে গেলো নাসিক ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শাহজালাল বাদলের সমর্থিত বহিরাগত বিএনপি’র নেতাকার্মীরা।
রোববার ৮ জুলাই সকাল সাড়ে ১১টায় সিদ্ধিরগঞ্জের বাঘমারা, নিমাইকাশারী, রসুলবাগ ও মাদানীনগর এলাকার বিএনপি নেতা বাবু, সুলতান, মহসিন, জিসান, হাজী তুষার, রুবেল ও জসিম মোল্লাসহ ২০/২৫ ছেলে নিয়ে স্কুলের সামনে ২টি ব্যানার নিয়ে মানববন্ধন করার জন্য দাড়ায়। এসময় স্থানীয় কয়েকজন মুরুব্বী এসে তাদের নিকট জানতে চান? আপনাদের বাড়ি কোথা?, আপনাদের তো এ সানারপাড় এলাকায় আগে কখনও দেখিনি? আপনারা কিসের মানববন্ধন করেন। আজ ৩ মাস যাবত আমরা পানির নিচে তলিয়ে আছি, নৌকা দিয়ে আমাদের চলাচল করতে হয়, এই খবরের প্রতিবাদ না করে স্কুলের কমিটির জন্য মানববন্ধন করতাছেন। আপনারা তো বাদলের লোক, (কাউন্সিলর শাহজালাল বাদল)।

বাদলকে কে বলেন না, মানববন্ধন করতে?। ওর তো বুকে সাহস নাই আমাদের সামনে মূখ নিয়ে দাঁড়াতে। এসময় স্থানীয়দের তোপের মূখে অবস্থার বেগতি দেখে তরিগরি করে ব্যানার নিয়ে পালিয়ে ওই বহিরাগত বিএনপি’র নেতাকর্মীরা। স্থানীয়দের অভিযোগ, স্কুল কমিটির বিরুদ্ধে মানববন্ধনের আয়োজনকারীরা সিদ্ধিরগঞ্জ থানা ছাত্রলীগের স্ব-ঘোষিত সভাপতি নাসিক ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শাহজালাল বাদলের শেল্টারে কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে। গত নাসিক নির্বাচনে ৩নং ওয়ার্ডে বিএনপির কোন কাউন্সিলর প্রার্থী দেয়নি। ৩নং ওয়ার্ডে প্রতিটি কেন্দ্রে মেয়র নির্বাচনে বিএনপি জয়লাভ করে। অন্যদিকে বিএনপি’র সাথে আতত করে নির্বাচনে নৌকা ডুবিয়ে ৩নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর হন শাহজালাল বাদল। এবং যার ফলে নির্বানের পর নাসিক মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভির সাথে কাউন্সিলর বাদলের দূরত্ব তৈরী হয়।

গত ২৭ জুলাই সিদ্ধিরগঞ্জে ১ ও ২ নং ওয়ার্ডের প্রায় ৬২ কোটি টাকা ব্যায়ে ১২টি প্রকল্পের উন্নয়ন কাজের উদ্ভোধন করেন নাসিক মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভি। এসময় উপস্থিত সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর মাকুসদা মুজাফ্ফর ৩নং ওয়ার্ডের সানারপাড় এলাকার দুঃখ দূর্দশার কথা তুলে ধরেন মেয়র আইভির নিকট। এসময় নাসিক মেয়র আইভি বলেন, ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলরের সাথে আমার রাগ আছে। কারণ ওই ওয়ার্ডে কোন কেন্দ্রেই নৌকা বিজয়ী হতে পারেনি। তাই বলে, আমি আমার জনগণকে কষ্ট দিতে পারি না। সানারপারের প্রধান সড়কটি টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে, পানি কমলেই কাজ উদ্ভোধন করা হবে। আর ওই কাজ উদ্ভোধন করার জন্য সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর মাকুসদা মুজাফ্ফরকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here