নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি: আদালতে মামলা করে বিপাকে পড়েছেন মামলার বাদী মোসা হাসিনা নামে এক নারী।এ বিষয়ে গত ২ ডিসেম্বর জেলা পুলিশ সুপারের বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করা হলেও ওই লিখিত অভিযোগের অগ্রগতি হয়নি বলে দাবি করেছেন মোসাঃ হাসিনা। সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী কদমতী কাসেমপাড়া এলাকায় দীর্ঘ ১০ বছর পানি উন্নয়ন বোর্ডের জমিতে বসবাস করে আসছেন ভূমিহীন মোসা হাসিনার পরিবার। কিন্তু জালাল ওরফে ঢাকাইয়া জালাল নামে এক ভূমিদস্যু দৃষ্টি পড়ে ওই জমির উপর।

জেলা পুলিশ সুপারের বরাবরে দেওয়া লিখিত অভিযোগ থেকে জানা যায়, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যান ও পুর্নবাসন সোসাইটির সদস্য ভূমিহীন মোসাঃ হাসিনার পরিবার। তিনি সিদ্ধিরগঞ্জের আদমজী কদমতী কাসেমপাড়া এলাকায় দীর্ঘ ১০ বছর পানি উন্নয়ন বোর্ডের জমিতে বসবাস করে আসছেন ভূমিহীন মোসা হাসিনার পরিবার। কিন্তু একই এলাকার ভূমিদস্যু জালাল ওরফে ঢাকাইয়া জালালের নেতৃত্বে শিব্বির, মমতাজ বেগম, দিনা বেগম, সেলিম বেগম ও আবুল খালেক ওই জমিটি গ্রাস করার জন্য উঠে পড়ে লাগে। গত ২২ নভেম্বর ওই ভূমিদুস্য চক্রটি মোসাঃ হাসিনার বসতবাড়িতে হামলা করে মারধর করে এবং নগদ ২৮ হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এসময় বাদিকে জীবন নাশের হুমকী দিয়ে চলে যায় আসামিরা। এ বিষয়ে জেলা পুলিশ সুপারের বরাবর ন্যায় বিচার পাওয়ার আশায় ওই নারীর পক্ষে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা কল্যান ও পুর্নবাসন সোসাইটির চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধ মোঃ শাহজাদা মিয়া বাদি হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি আব্দুস সাত্তার জানান, অভিযোগটা থানায় আসার পর ইন্সপেক্টর তদন্তকে সঠিক তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পুলিশ তদন্ত চলমান রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here