নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এড. মাহমুদা মালা বলেছেন, স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যখন দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন, তখন মুক্তিযদ্ধেও পরাজিত শক্তির ষড়যন্ত্রে বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করা হয়। বঙ্গবন্ধু কণ্যা বর্তমান প্রধাণমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন দায়িত্ব নিয়ে দেশে উন্নয়নের জোয়ার সৃষ্টির চেষ্টা করছিলেন, তখনই সেই পাকিস্তানী প্রেতাত্মারা শেখ হাসিনাকে হত্যার জন্য ২১ আগষ্ট গেনেড হামলা চালিয়েছিলো। দেশবাসীর দোয়ায় সেদিন তিনি প্রাণে বেঁচে যান।

২১ আগষ্ট গেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুব মহিলালীগের উদ্যোগে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধাণ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সোমবার (২১ আগষ্ট) বিকেলে ২নং রেল গেইট সংলগ্ন দলীয় কার্যালয়ে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এড. মাহমুদা মালা আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জে গত কয়েক মাসে বেশ কিছু অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেছে। নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুব মহিলালীগের ৪৯ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটিকে কেন্দ্র থেকে অনোমোদন দেয়া হয়। এই কমিটিকে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সেক্রেটারী সুপারিশ করেছিলেন। কিন্তু এই কমিটির বিরুদ্ধে একটা পাল্টা কমিটি দাড় করিয়ে দেয়া হলো। তারপরও আমি চুপ ছিলাম। কিন্তু এই ইস্যুতে যখন আমার চরিত্র হনন করা শুরু হলো, তখন আর আমি চুপ থাকতে পারলাম না, আমি এর প্রতিবাদ শুরু করি। এর আগে নাজমা রহমান, ডা: সেলিনা হায়াত আইভী, সারাহ বেগম কবরীসহ অনেকে নারীর চরিত্র হনন করেছেন তারা। যে নারী জাতিকে আল্লাহপাক এতো সম্মান দিয়েছেন, তাদের চরিত্র হনন করা কতটা পাপের কাজ, তা বলে বোঝানো যাবে না।

তিনি আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জের একটি বিশেষ পার্কের মালিক একজন বড় ভাই আছেন, যিনি নারায়ণগঞ্জের স্থানীয় পত্রিকায় আমাদের চরিত্র হনন করে বাজে কথা লেখাচ্ছে। আমি সেই বড় ভাইয়ের উদ্দেশ্যে বলতে চাই, পার্কে বসে বাজে কথা লিখলেই আমাদের চরিত্র খারাপ হয়ে যাবে না। পার্ক থেকে বের হয়ে রাজপথে আসুন, দেখুন আপনাদের বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষ জেগে উঠছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here