নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষন ইউনেস্কোর স্বীকৃতি প্রাপ্তিতে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসনের আনন্দ শোভাযাত্রা শুরুর পরই আটকে গেছে যানজটে। চাষাঢ়া বিজয় স্তম্ভ থেকে শুরু হয়ে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে থেকে ঘুরে পপুলার ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের সামনে এসে যানজটের কবলে পরে আনন্দ শোভযাত্রা এবং প্রায় দশ মিনিট আটকে থাকে সেখানে। গুরুত্বপূর্ণ এই আয়োজনে এ ধরনের অব্যবস্থাপনায় ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা গেছে শোভাযাত্রায় আগত অনেককে।

শনিবার (২৫ নভেম্বর) সকালে এই আনন্দ শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর মেমোরি অব দ্যা ওয়াল্ড ইনটারন্যাশনাল রেজিষ্টাওে অন্তর্ভূক্তির মাধ্যমে বিশ^ প্রামাণ্য ঐতিহ্যের স্বীকৃতি লাভের অসামাণ্য অর্জণ উপলক্ষে দেশব্যাপী আনন্দ শোভাযাত্রার অংশ হিসেবে নারায়ণগঞ্জে সকাল সাড়ে নয়টায় শোভাযাত্রা অনুষ্ঠানের সময় নির্ধারন থাকলেও ৪৫ মিনিট দেরীতে সকাল সোয়া দশটায় শুরু হয় আনন্দ শোভাযাত্রা।

শোভাযাত্রা শুরুর পূর্বে চাষাঢ়া বিজয় স্তম্ভে রক্ষিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমান, জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া, জেলা পুলিশ সুপার মইনুল হক, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেনসহ আমন্ত্রিত অতিথিরা। পুস্পস্তবক অর্পণ শেষে বিজয় স্তম্ভ থেকে আনন্দ শোভাযাত্রা শুরু হয়ে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে থেকে ঘুওে ওসমানী ষ্টেডিয়ামে গিয়ে শেষ হয়। পথিমধ্যে শহরের পপুলার ডায়াগনষ্টিক সেন্টারের সামনে এসে যানজটের কবলে পরতে হয় শোভাযাত্রায় আগতদের। এখানে প্রায় দশ মিনিট আটকে থাকে আনন্দ শোভাযাত্রা।

দফায় দফায় প্রস্তুতি সভা করেও গুরুত্বপূর্ণ এই আয়োজন সফলভাবে শেষ করতে না পারায় নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসনের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন আগত অনেকে। বিশেষ করে নারায়ণগঞ্জের ট্রাফিক ব্যবস্থার অব্যবস্থাপনাকে দায়ী করেন তারা এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের আয়োজনে আরো দায়িত্বশীল হওয়ার জন্য আহবান জানান সকলে।

এ বিষয়ে জানতে নারায়ণগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) আ: রশিদের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি কলটি রিসিভ করেননি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here