নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: বিশ্বব্যাপী মহামারি রূপ নেয়া করোনা ভাইরাসের প্রকোপে বাংলাদেশেও আতঙ্ক ছড়িয়ে পরছে সর্বত্র। স্কুল কলেজ বন্ধ হয়ে গেছে অনেক আগেই, ঘোষনা করা হয়েছে সাধারণ ছুটি। ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত দেশে সাধারণ ছুটি ঘোষনা করেছিলো সরকার, কয়েক দফা বেড়ে ১৬ মে পর্যন্ত ঘোষনা হয়েছে সেই ছুটি। সেই সাথে দেশের সকল মার্কেট, সুপার মার্কেট ও দোকানপাট বন্ধ ঘোষনা করেছিলো দোকান মালিক সমিতি, বন্ধ হয়ে গেছে গন পরিবহন। শুধুমাত্র নিত্যপন্যের দোকান ও ঔষধের দোকান ছাড়া বাকী সব বন্ধ রয়েছে। সারাদেশের রাজনীতিবীদরা চেষ্টা করছেন করোনা প্রতিরোধে সাধারণ মানুষের পাশে দাড়াতে। সরকারী বেসরকারী পর্যায়ে চলছে সাহায্য সহযোগিতা। সংসদ সদস্যসহ জনপ্রতিনিধিরা সাধারণ মানুষের সেবায় এগিয়ে এসেছেন। সকলকে সচেতন করছেন করোনার কবল থেকে মুক্তি পেতে সতর্ক থাকার জন্য। স্বাস্থ্য বিধি মেনে সকলকে ঘরে থাকার আহবান জানিয়েছে সরকার। আর যারা প্রয়োজনে বাইরে বের হচ্ছে তাদেরকে প্রয়োজনীয় সুরক্ষা ব্যবস্থা অবশ্যই মেনে চলার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।

করোনার প্রকোপ প্রতিরোধে চলমান লকডাউন পরিস্থিতিতে নারায়ণগঞ্জের অসংখ্য মানুষ কর্মহীন হয়ে পরেছেন। সেসব অসহায় মানুষকে খাদ্য সামগ্রী ও নগদ অর্থ দিয়ে সাহায্য সহযোগিতা করছে সরকার, বিভিন্ন জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক নেতা থেকে শুরু করে সমাজের সামর্থবান ব্যক্তিবর্গ। নারায়ণগঞ্জ হচ্ছে করোনার রেড জোন। এখানে দিনকে দিন সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে, সেইসাথে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যাও বাড়ছে। তাই এখানকার মানুষকে গত প্রায় দুইমাস যাবত জোর করে ঘরে আটকে রাখা হয়েছে। এমতাবস্থায় চরম খাদ্য সংকটে রয়েছে নারায়ণগঞ্জের অভাবী মানুষগুলো।

নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর যুবদলের নেতারাও এসব অসহায় মানুষের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। জেলা যুবদলের সভাপতি শহিদুল ইসলাম টিটু ও মহানগর যুবদলের সভাপতি মাকসুদুল আলম খন্দকার খোরশেদ করোনার শুরু থেকেই সাধারণ মানুষকে সাহায্য সহযোগিতা করে যাচ্ছেন কিন্তু তেমনভাবে চোখে পড়েনি দুটি সংগঠনের সেক্রেটারী গোলাম ফারুক খোকন বা মমতাজউদ্দিন মন্তুকে। করোনা মোকাবেলায় নারায়ণগঞ্জ যুবদলের দুই সম্পাদককে খুঁজেই পাওয়া যাচ্ছে না বরং তাদের চেয়ে অনেক বেশী তৎপরতা দেখাচ্ছেন সংগঠনের দুই যুগ্ম সম্পাদক। জেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সহিদুর রহমান স্বপন এবং মহানগর যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক সাগর প্রধান করোনায় বিপর্যস্ত অসহায় মানুষের সেবায় দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন। দুই যুগ্ম সম্পাদকের কাছে এবার পুরোপুরি ধরাশায়ী যুবদলের দুই হেভিওয়েট সেক্রেটারী।

নারায়ণগঞ্জ জেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সহিদুর রহমান স্বপন তার নিজ উদ্যোগে সোনারগাঁয়ের কাচপুরস্থ নিজ বাসভবনে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী করছেন এবং নিজস্ব উদ্যোগেই সোনারগাঁয়ের ১০টি ইউনিয়নের সাধারণ মানুষের মাঝে বিনামূল্যে বিতরণ করছেন। তাছাড়া সোনারগাঁয়ের বিভিন্ন এলাকায় জীবানুনাশক স্প্রে করছেন তিনি নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবীদের সাথে নিয়ে, এলাকার মানুষদের মাঝে তৈরী করছেন জনসচেতনতা। নিজ উদ্যোগে অসহায় কর্মহীন সোনারগাঁবাসীর মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করছেন যুবদল নেতা স্বপন যা প্রশংসিত হচ্ছে সোনারগাঁয়ের সর্বত্র।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক সাগর প্রধানও করোনা মোকাবেলায় চালিয়ে যাচ্ছেন প্রানান্তর চেষ্টা। মার্চ মাস থেকেই হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও মাস্ক বিতরণ করছেন সিদ্ধিরগঞ্জসহ নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায়, লোকজনকে সচেতন করতে মাইকিং করেছেন রাতদিন। এছাড়াও নিজ উদ্যোগে চাল ডাল তেলসহ বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করে যাচ্ছেন সাগর প্রধান, পাশাপাশি শিশুদের জন্য গুড়োদুধসহ শিশুখাদ্য বিতরণ করে সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে সক্ষম হন এই যুবদল নেতা। সিদ্ধিরগঞ্জের ৮নং ওয়ার্ডে মৃত ব্যক্তিদের দাফনের জন্যেও যুবদলের নেতাকর্মীদের নিয়ে গঠন করেছেন কমিটি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here