নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, ফতুল্লা প্রতিনিধি : ফতুল্লায় যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী কে মারপিট করে চোখে রক্তাক্ত জখম করেছে পাষন্ড স্বামী । গত ২৪ সেপ্টেম্বর সকালে এ ঘটনা ঘটে।
এ ব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানায় নির্যাতনে শিকার এক সন্তানের জননী স্বামীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ পাষন্ড স্বামী জলিল (২৮) কে আটক করে।

এলাকাবাসী জানান, বরগুনা জেলার আমতলী থানাধীন গুইলশাখালী এলাকার মনোয়ার হেসেনের মেয়ে রাবেয়া আক্তার (২২)। সে ইসলামের শরীয়ত মোতাবেক গত ৪ বছর পূর্বে পারিবারিক পছন্দে আ. জলিল কে বিবাহ করে। বিয়ের পর তাদের দাম্পত্যজীবনে একটি পুত্র সন্তান জন্ম নেয়। জলিল একই এলাকার কলাগাছিয়া গ্রামের আ. জব্বারের ছেলে। বিয়ের সময় রাবেয়ার সুখের জন্য তার বাবা জলিলকে ১লক্ষ টাকা নগদ প্রদান করে। এরপরও তার নির্যাতন থামেনি। তারা ফতুল্লার কুতুবপুর নন্দলালপুর এলাকার রুহুল আমিনের বাড়িতে ভাড়া থাকে। গত ২৪ সেপ্টেম্বর সকালে ১লক্ষ টাকা যৌতুক আনার জন্য রাবেয়াকে মারধর করে । রাবেয়া বাবার কাছ থেকে যৌতুক আনতে রাজী না হওয়ায় জলিল রাবেয়ার চোখে আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করেছে। পরে তার পরিবার রাবেয়াকে খানপুর ৩শ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়। পরে গতকাল(২৫ সেপ্টেম্বর) রাবেয়ার বাবা মনোয়ার হোসেন ফতুল্লা থানায় বাদী হয়ে আ. জলিলসহ ৩/৪ জনকে আসামী করে ফতুল্লা মডেল থানায় অভিযোগ করে।

এদিকে, পুলিশ আ.জলিলকে আটক করে থানা হাজতে রাখছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here