নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: সিদ্ধিরগঞ্জ আটি ওয়াবদা কলোনী এলাকার হাসিনা আক্তার (২৩) নামেরএক গৃহবধূকে ৩ লক্ষ টাকা যৌতুকের দাবিতে মারধর করে শশুর বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে তারই পাষন্ড স্বামী জাকির হোসেন রাব্বি ও শশুর বাড়ির লোকেরা। এ ঘটনায় হাসিনা আক্তার বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট “ক” অঞ্চলের আদালতে যৌতুক আইনের (৪) এর ধারায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।
মঙ্গলবার (১৭ অক্টোবর) দুপুর ১২টায় নারায়ণগঞ্জ আদালত প্রাঙ্গনে এসে উপস্থিত সাংবাদিকদের এমনটাই জানালেন যৌতুকের জন্য স্বামী কর্তৃক নির্যাতিত গৃহবধূ হাসিনা আক্তার।

ঘটনার বিবরনে গৃহবধূ হাসিনা আক্তার জানান, গত ১১/০৫/২০১৭ইং তারিখে ঢাকা জেলার যাত্রাবাড়ী থানার মাতুয়াইল কোনাপাড়া নতুন ব্রীজ এলাকার মোঃ বাবুল মিয়ার ছেলে জাকির হোসেন রাব্বির সাথে তার পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তার স্বামী পর নারী ও নেশায় আসক্ত হয়ে পড়েন। এরপর থেকেই তাকে প্রায়ই মারধর করে তার পিতার কাছ থেকে ৩ লক্ষ টাকা যৌতুক হিসেবে দাবি করেন। যৌতুক না দেওয়ায় প্রায়ই তার উপর শশুর-শাশুড়ী, দেবর-ননদ ও তার স্বামী তাকে বেধরকভাবে পিটিয়ে মারধর করে বাড়ি থেকে তাদিয়ে দেয়। বর্তমানে সে তার পিতার আশ্রয়ে রয়েছে বলে জানায়।

মামলায় অপর আসামীরা হলেন, শশুর বাবুল মিয়া (৫০) তার স্ত্রী জায়েদা বেগম (৪২) দেবর রাসেল (৩৫) ও ননদ হাবিবা (২২)।

এ সময় হাসিনা আক্তার কান্ন জরিত কন্ঠে বলেন, গরীবের উপর যত অন্যায় আর অত্যাচার। আর কত মেয়েদের এ ধরনের যৌতুকের বলি হতে হবে? হাসিনা আক্তার তার নিজের জীবনের এবং তার পরিবারের নিরাপত্তায় জেলা প্রশাসনের কাছে সাহায্য ও সহযোগিতা কামনা করেছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here