নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম বলেছেন, মিয়ানমারে মুসলিম রোহিঙ্গাদের উপর বর্বর অমানসিক নির্যাতন গণহত্যা স্মরণকালের ইতিহাসকে হার মানিয়েছে। পাশাপাশি বিশ্ব মানবতাকে করেছে কলুষিত। নির্যাতিত রোহিঙ্গা শরনার্থী আমাদের দেশে আশ্রয় গ্রহন করেছে। তাদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের ঈমানী দায়িত্ব।

শুক্রবার (২২ সেপ্টম্বর) সকাল ৯ টায় শহরের ডিআইটিস্থ দোয়েল প্লাজায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ মহানগর কর্তৃক আয়োজিত সভাপতি মুফতি মাসুম বিল্লাহ’র সভাপতিত্বে ১ম শুরার অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ইঞ্জিনিয়ার আশরাফুল আলম আরো বলেন, পীর সাহেব চরমোনাই’র নেতৃত্বে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মিয়ানমারে মুসলিম হণহত্যা বন্ধের দাবিতে সোচ্চার ভূমিকা পালন করে আসছে। ৫ সেপ্টেম্বর থেকে কেন্দ্রীয় ত্রান কমিটির তত্ত্বাবধানে ১০টি টিম রোহিঙ্গা আশ্রয় শিবিরে ত্রান বিতরন, টিউবওয়েল স্থাপন, বাথরুম নির্মাণ এবং ছাউনী নির্মাণের কাজ করে যাচ্ছেন। এই সমস্যার সমাধান না হওয়া পর্যন্ত ইসলামী আন্দোলনের পক্ষ থেকে সকল ধরনের ত্রান, সহযোগিতা, বাড়ীঘর নির্মাণ কাজ অব্যাহত রাখতে হবে।

তিনি বলেন, মিয়ানমারের সামরিক জান্তা ও অং সান সুচির খুঁটির জোর কোথায় তা আমাদেরকে খুঁজে বের করতে হবে। সুচি একজন রক্ত পিপাসু খুনি। তার বিচার করতে হবে। সুচি না থামলে আরাকান দখলের ঘোষনা দিয়ে আরকানকে স্বাধীন করে রোহিঙ্গাদের ফেরত দিতে হবে। যারা আশ্রয় নিয়েছেন তাদের সকল ধরনের নিরাপত্তা বিধান করা আমাদের এবং সরকারের দায়িত্ব ও কর্তব্য।

ত্রান বিতরনের দায়িত্ব সেনাবাহিনীর উপর অর্পন করাতে তিনি সরকারকে ধন্যবান জানান।

ইসলামী আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ মহানগর শাখার সেক্রেটারী সুলতান মাহমুদ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন মহানগরের সকল সম্মানিত শুরার সদস্য বৃন্দ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here