নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: বিএনপি’র চেয়ারপার্সণ বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রদলের বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সভা নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে করতে চাইলেও পুলিশী বাঁধার মুখে তা করতে পারেনি তারা। পরে নারায়ণগঞ্জ ক্লাব মার্কেটের তৃতীয় তলায় এই প্রতিবাদ সভার আয়োজন করা হয়।
বৃহস্পতিবার (২৬ এপ্রিল) বিকেলে এই প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রদল নেতা ইব্রাহীম আহমেদ বাবুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিবাদ সভায় প্রধাণ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি নেতা মনির হোসেন খান। প্রধাণ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর মৎসজীবী দলের সভাপতি ও সাবেক ছাত্র নেতা জাহাঙ্গির আলম রতন।

উপস্থিত ছিলেন মহানগর মৎসজীবী দলের সাধারণ সম্পাদক পারভেজ মল্লিক, মোঃ রাকিব, প্রিতম দাস, হৃদয় সাহা, শ্মরন দাস, হৃদয় দাস,মোঃ রাব্বি,মোঃ সাব্বির, মোঃ সারজিল, মোঃ যায়েদ, মোঃ অনিক, সুমিত ঘোষ, নিলয় ঘোষ গোপাল ঘোষ, মোঃ অরনব, মোঃ শান্ত, অপুর্ব রায়, সুশান্ত দাস ইতাদি।

প্রতিবাদ সভায় প্রধাণ অতিথি মহানগর বিএনপি নেতা মনির হোসেন খান বলেন, পাকিস্তানী বাহিনীর স্বৈরশাসন থেকে মুক্তি পেতে ৭১ এর মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়েছিলো দু-মুঠো ভাতের আশায়। কিন্তু লক্ষ প্রাণের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীণ দেশে ৭৪’র দুর্ভিক্ষে কুকুরে মানুষে কাড়াকাড়ি করে খাবার খেয়েছে, কলাপাতা দিয়ে লজ্জা নিবারন করেছে। সকল রাজিৈনতক দল নিষিদ্ধ কওে দেশে এক দলীয় শাসন কায়েম করেছিলো। সাধারণ মানুষের জীবনের কোন নিরাপত্তা ছিলো না। তখন অধিকার আদায়ে বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের নেতৃত্বে দেশে গনতন্ত্র পুন: প্রতিষ্ঠা হয়েছিলো।

সভাপতির বক্তব্যে মহানগর ছাত্রদল নেতা ইব্রাহীম আহমেদ বাবু বলেন, দেশে বর্তমানে ৭৫’ পরবর্তী পরিস্থিতির মতো পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। দেশের মানুষের ভাত ও ভোটের অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। মানুষ এখন নিরাপদে ঘরে ফিরতে পারছে না। দেশের গনতন্ত্রকে হত্যা করে এই জালিম সরকার আরেকটি নীল নক্সার নির্বাচন বাস্তবায়ন করতে বিএনপি চেয়ারপার্সণ ও তিনবারের সফল প্রধাণমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় কারাগারে আটকে রেখেছে। দেশে গনতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে আমাদের নেত্রী আমাদের মা বেগম খালেদা জিয়াকে জেল থেকে মুক্ত করতে হবে। আর এ মুক্তির আন্দোলনে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে হবে ছাত্রদলকে। তাই নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রদলের প্রতিটি নেতাকর্মীতে প্রস্তুত থাকতে হবে সেই সংগ্রামে অংশ নেওয়ার জন্য।

বাবু আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জ বিএনপি’র নেতাকর্মীদের এই চরম ক্রান্তিকালে ছায়া দিয়ে সাংগঠনিকভাবে ঐক্যবদ্ধ রেখেছেন মহানগর বিএনপি’র সিনিয়র সহ সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খান। নারায়ণগঞ্জ বিএনপি’র অনেক সিনিয়র নেতা যখন নিজের পিঠ বাঁচিয়ে আন্দোলন সংগ্রাম থেকে দুরে রয়েছেন, তখন সাখাওয়াত হোসেন খান নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে চেয়ারপার্সণের মুক্তির দাবীতে রাজপথের আন্দোলন সংগ্রাম চাঙ্গা রেখেছেন। তাছাড়া মামলা হামলায় জর্জরিত নেতাকর্মীদের জন্য আদালতে আইনী লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন সাখাওয়াত হোসেন খান। তাই এ নেতার নেতৃত্বে আর নারায়ণগঞ্জ ছাত্রদলের প্রাণ জাকির খানের পক্ষে নারায়ণগঞ্জ ছাত্রদল রাজপথে থেকে সকল আন্দোলন সংগ্রামে ভূমিকা রাখার প্রত্যয় ব্যাক্ত করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here