নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: ১ ডিসেম্বর শহীদ রবিউল আওয়াল দিবস। স্বৈরাচারী এরশাদ হটানোর আন্দোলনে পুলিশের গুলিতে নারায়ণগঞ্জে গত ৯০-র এই দিনে রবিউল (১৪) প্রান হারায়। ২৭ নভেম্বর এরশাদ সারা দেশে জরুরি অবস্থা ঘোষনা করে। এর বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জের আপামর জনতা, ছাত্র ও শ্রমিকরা প্রতিদিন বিক্ষোভ মিছিল বের করে। বিক্ষোভ মিছিলকে ছত্রভঙ্গ করার জন্যে ১ ডিসেম্বর সন্ধ্যা ৭ টায় পুলিশ শহরের ২ নং রেল গেটের কাছে মিছিলে গুলি করে। গুলিতে মিছিলের অগ্রভাগের দর্জি শ্রমিক রবিউল আহত হয়। পুলিশ আহতাবস্থায় রবিউলকে থানায় পৈশাচিক উল্লাসে পেটালে সে সেখানেই মারা যায়। পুলিশ রবিউলের লাশ ময়না তদন্ত ছাড়া ঐ রাতেই মাসদাইর গোরস্থানে কবর দেয়। রবিউলের দরিদ্র পিতা আনোয়ার হোসেন নারায়নগঞ্জ থানার তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পরিমল বনিক ও দারোগা হানিফ-এর বিরুদ্ধে মামলা করতে চাইলেও বিভিন্ন চাপের মুখে করতে পারেনি।

শুক্রবার (১ ডিসেম্বর) সকাল ৯টায় শহীদ রবিউল স্মৃতি সংসদ মাসদাইর গোরস্থানে শহীদ রবিউলের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পন করবে এবং মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনায় ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ দোয়া হবে। শহীদ রবিউল সৃত্মি সংসদের আহ্বায়ক এটিএম কামাল স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে নারায়ণগঞ্জের এই বীর শহীদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলী জানাতে এই কর্মসূচিতে অংশগ্রহনে দলমত নির্বিশেষে সকলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here