নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: পূর্ব ঘোষণা থাকলেও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা কালীন সদস্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর এবং নারায়ণগঞ্জের গণমানুষের দুই নেতা প্রয়াত ভাষা সৈনিক এ কে এম শামসুজ্জোহা ও পৌর পিতা আলী আহাম্মদ চুনকার মৃত্যুবার্ষিকী যথাসময়ে পালন করতে পারলোনা নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ।
নির্দিষ্ট সময় অনুযায়ী গত ২০ ফেব্রুয়ারী শামসুজ্জোহা এবং ২৫ ফেব্রুয়ারী চুনকার মৃত্যুবার্ষিকীর দিনে জেলা আওয়ামীলীগ দলীয় কার্যালয়ে স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল করার প্রস্তুতি নিলেও শেষতক তা দু’দিন বিলম্বে ২৭ ফেব্রুয়ারী করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দলটির দায়িত্বশীলরা।

ফলে শামসুজ্জোহার ন্যায় চুনকার মৃত্যুবার্ষিকীর দিনেও জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে দলীয় স্মরণ সভায় যোগদানের উদ্দেশ্যে এসে পরবর্তীতে ক্ষোভ প্রকাশ করে ফিরে যান তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

জানাগেছে, ৫২’র ভাষা আন্দোলন থেকে ৭১’র স্বাধীনতা যুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠা কালীন সদস্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আস্থাভাজন, প্রভাবশালী জনপ্রতিনিধি ও মেহনতি গরীবের বন্ধু হিসেবে পরিচিত সর্বজন শ্রদ্ধেয় নারায়ণগঞ্জ জেলার ঐতিহ্যবাহী দু’টি আলোচিত পরিবারের কর্ণধার হচ্ছেন, স্বর্ণপদক প্রাপ্ত মরহুম ভাষা সৈনিক এ কে এম শামসুজ্জোহা এবং ধর্মভীরু মরহুম আলী আহাম্মদ চুনকা (র:)।

প্রাচ্যের ডান্ডি খ্যাত নারায়ণগঞ্জের ইতিহাসে যাদের নাম রয়েছে স্বর্ণাক্ষরে লেখা। যারা দেশ ও মানুষের স্বার্থে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলেন সকল আন্দোলনে, বিলিয়ে দিয়েছিলেন নিজেদের সর্বস্ব, অর্জন করেছেন আমজনতার সম্মান ভালবাসা। আর উভয়েই জন্ম দিয়েছেন এমন সন্তানদের, যারা নিজেরাও পিতার মতই জনপ্রতিনিধি হয়ে করে যাচ্ছেন নারায়ণগঞ্জবাসীর উন্নয়ণে সেবা।

তাই তো মৃত্যুর পরেও বর্ষীয়াণ এই দুই রাজনীতিবিদকে আদৌ স্মরণ করে আসছে সাধারন জনগণসহ নারায়ণগঞ্জের রাজনীতিবিদরা।

যার প্রেক্ষিতে গত ২০ ফেব্রুয়ারী ভাষা সৈনিক এ কে এম শামসুজ্জোহা এবং ২৫ ফেব্রুয়ারী আলী আহাম্মদ চুনকার মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে স্মরণ সভা ও দোয়া মাহফিল করার প্রস্তুতি নেয় জেলা আওয়ামীলীগ।

কিন্তু যথাসময়ে সেই কর্মসূচী আর পালন করতে পারেনি দায়িত্বশীলরা। কিন্তু কেন? এব্যাপারে জানতে চাইলে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে জানান, ‘প্রায় কাছাকাছি সময়ের ব্যবধানে দুই বর্ষীয়াণ নেতা শামসুজ্জোহা ও চুনকা সাহেবের মৃত্যুবার্ষিকী হওয়ায় নির্ধারিত দিনে জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে স্মরণ সভা করার প্রস্তুতি নিয়েও তা করা সম্ভব হয়নি। তাই আগামী ২৭ ফেব্রুয়ারী বিকেল ৪ টায় নগরীর দলীয় কার্যালয়ে জেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে এই দুই নেতার স্মরণে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here