নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগের একজন প্রভাবশালী এমপি হচ্ছেন আলহাজ¦ এ কে এম শামীম ওসমান।
অতীত অভিজ্ঞতার আলোকে দেখাগেছে, নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের এই এমপি যখনই কোন সভানুষ্ঠানে কোন ব্যাপারে শংকা প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন, ঠিক তার পরক্ষনেই অনেকটা কাকতালীয় ভাবেই সেই শংকার বাস্তবায়ন ঘটে যেত। যেমনটা হয়েছিল নগরীর পাইকপাড়ায় অপারেশন হিট স্টর্ম-২৭ অভিযানে গুলশানের জঙ্গি হামলার মাস্টারমাইন্ড তামিমসহ তিন জঙ্গি নিহতের ঘটনায়।

কারন, নারায়ণগঞ্জের পাইকপাড়ায় সরকারের পুরস্কার ঘোষিত জঙ্গিদের অর্থের জোগানদাতা তামিম এসে যে আস্তানা গড়বে আর প্রশাসনের গুলিতে নিহত হবে, তা অনেকটাই কল্পনাতীত ছিল নগরবাসীর। কিন্তু এমপি শামীম ওসমান ঠিকই তার পূর্বে নগরীর একটি মন্দিরে ধর্মীয় অনুষ্ঠানে বক্তব্যকালে নারায়ণগঞ্জে জঙ্গিদের আস্তানা থাকার বিষয়ে শংকার কথা জানিয়েছিলেন। পরবর্তীতে শুধু তামিমই নয়, আরো অনেক জঙ্গি নারায়ণগঞ্জ থেকে গ্রেফতার হওয়ায়, শামীম ওসমানের সেই শংকা অনেকটা ভবিষ্যদ্বানীর মতই প্রমাণিত হয়।

আর তাই এবার শামীম ওসমানের নতুন শংকা মোকাবেলায় ঐক্যবদ্ধ ভাবে শক্তির সঞ্চার ঘটাতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের তৃণমূল নেতাকর্মীরা বলে দলীয় সূত্রে জানাযায়।

কেননা, আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পূর্বে আগামী সেপ্টেম্বর থেকে নভেম্বরের মধ্যে দেশের পরিস্থিতি অন্য রকম হয়ে যাবে বলে শংকা প্রকাশ করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) আসনের আওয়ামীলীগের প্রভাবশালী এমপি শামীম ওসমান।
গত ১৫ মার্চ বিকেলে ফতুল্লাস্থ ইসদাইর রাবেয়া হোসেন উচ্চ বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে ফতুল্লা ইউনিয়নের (৬,৭,৮,৯) নং ওয়ার্ডের আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের সাথে মত বিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যকালে শংকা প্রকাশ করে তিনি আরো বলেছেন, ‘আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচন হবে আওয়ামীলীগের জন্য ফাইনাল খেলা। কারন, আওয়ামী লীগ সরকার স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করেছে। জঙ্গিবাদ দমন করছে। আমরা যেমন বঙ্গবন্ধু ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচার করেছি, তারাও তেমনি তাদের নেতাদের মৃত্যুদন্ডের দায়ে আমাদের উপর চড়াও হবে। দূর্নীতির দায়ে বিএনপির নেত্রী জেলে আর তার ছেলে দেশ ছেড়ে চলে গেছে। তারাও এর প্রতিশোধ নেয়ার চেষ্টা করবে। বিদেশি ও সাম্প্রদায়িক শক্তিরা এদেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। এর মধ্যে হতে পারে আমি মরেও যেতে পারি। তাই আমাদের কে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। আমি এমপি না হলেও চলবে, কিন্তু মাতৃতুল্য শেখ হাসিনাকে আবারো ক্ষমতায় আনতে হবে।’

গত ১২ মার্চ থেকে ২০ মার্চ পর্যন্ত ফতুল্লা থানাধীন ৫টি ইউনিয়নের তৃণমূল নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময় কালে শামীম ওসমান একই শংকা প্রকাশ করায় এখন স্বাধীনতা বিরোধীদের ষড়যন্ত্র মোকাবেলার পাশাপাশি শেখ হাসিনা এবং শামীম ওসমানকে পুনরায় ক্ষমতায় আনতে ঐক্যবদ্ধ হয়ে শক্তির সঞ্চয় করছে বলে জানান তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

এব্যাপারে ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ¦ এম সাইফুল্লাহ বাদল বলেন, ‘ফতুল্লা আওয়ামীলীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ ছিল, ঐক্যবদ্ধ থাকবে। সামনে যতই প্রতিকূলতা আসুক না কেন, পুনরায় শেখ হাসিনা ও শামীম ওসমানকে বিজয়ী করতে দলীয় নেতাকর্মীরা নিরলস পরিশ্রম করবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here