নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: শেষ হলো জেলা ব্যাপী পুলিশ প্রশাসনের মাদক বিরোধী বিশেষ অভিযান। টানা ৫ দিন ব্যাপী চলা এই অভিযানের ফলে মাদক বিক্রেতা, সেবনকারী যেই পুলিশের জালে আটক হয়েছেন তাকেই ভ্রাম্যমান আদালতে সাজার মাধ্যমে যেতে হয়েছে কারাগারে।
বৃহস্পতিবার (২০ এপ্রিল) অভিযানের শেষ দিনে নগরীর বিভিন্ন স্থান থেকে সদর মডেল থানায় আটক ১১ জনের মধ্যে ৯ জন মাদক বিক্রেতা ও সেবনকারীকে ৬ মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক আজিজুল হক হাওলাদার ও সহকারী উপ-পরিদর্শক সুব্রত চন্দ্রর নেতৃত্বে সংগীয় ফোর্স নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে মাদক বিক্রেতা ও সেবনকারীদের আটক করেন। এরপর রাত সাড়ে ১০ টায় থানায় ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে আটককৃতের ৬ মাস করে কারাদন্ড প্রদান করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো: জাহাঙ্গীর আলম।

দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, বন্দর সালেহ নগর এলাকার বাসিন্দা মৃত সয়েজদ্দিনের পাুত্র মোঃ বাপ্পী (২৭), সারমোড়া আবু সালের বাড়ীর ভাড়াটিয়া মোঃ বাছেরের পুত্র মোঃ নাঈম (১৮), শহরের সৈয়দপুর এলাকার মৃত শাহবুদ্দিনের পুত্র সোহেল (৩০), টানবাজার র‌্যালী বাগান এলাকার বিল্লালের পুত্র মোঃ মনির হোসেন (১৯), ফতুল্লাস্থ জালকুড়ি ডলিদের বাড়ীর ভাড়াটিয়া মৃত সত্তার সিকদারে পুত্র মোঃ জাকির হোসেন (২৭),  তল্লা কানন এর বাড়ীর ভাড়াটিয়া মোঃ হানিফের পুত্র সুমন আহম্মদ শুভ (২৯), মাসদাইল সুমন এর বাড়ীর ভাড়াটিয়া রায়হানের পুত্র মোঃ আরিফ (২৯), হাজীগঞ্জ কাশেম এর বাড়ীর ভ্ড়াাটিয়া মোঃ শরিফ হোসেনের পুত্র শাকিল (১৯) ও টানবাজার র‌্যালী বাগান এলাকার জব্বারের পুত্র আসিফ (১৮)।

অপরদিকে, নগরীর ডিয়ারা সুকুমপট্টি এলাকায় অভিযান চালিয়ে এক কেজি গাঁজাসহ মৃত আলী আহম্মদের পুত্র আবুল কালাম (৪৬)কে গ্রেফতার করেন সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক শফিক সাগর। আর বাবুরাইল এলাকা থেকে ১’শ পিস ইয়াবাসহ আমবাগান এলাকার মৃত জামাল হোসেনের পুত্র মোঃ সাব্বির হোসেন (২৩ কে গ্রেফতার করেন সহকারী উপ-পরিদর্শক সুব্রত। এদের বিরুদ্ধে থানায় মাদক আইনে পৃথক মামলা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here