নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: সারাদেশে ইপিআই কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ‘হাম-রুবেলা ক্যাম্পেইন ২০২০’ আগামী ১৮ মার্চ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে। ক্যাম্পেইনটি চলবে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত। ক্যাম্পেইন চলাকালীন ৯ মাস থেকে ১০ বছরের কম বয়সী প্রতিটি শিশুকে ১ ডোজ এমআর টিকা প্রদান করা হবে। শুক্রবার ও সরকারি ছুটির দিন ব্যাতিত ক্যাম্পেইন চলবে। ১ম সপ্তাহে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এবং ২য় ও ৩য় সপ্তাহে কমিউনিটির টিকাদান কেন্দ্রে ক্যাম্পেইন কার্যক্রম সকাল ৮ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত চলবে।

রোববার (১৫ মার্চ) বিকাল ৩টায় নারায়ণগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সিভিল সার্জন ডা. ইমতিয়াজ আহমেদ সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে সাংবাদিকদের তিনি এসব তথ্য জানান।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. ইমতিয়াজ আহমেদ জানান, ইতিমধ্যে ক্যাম্পেইনের অংশ হিসেবে জেলার ৫টি উপজেলায় (সিটি করপোরেশন ব্যাতীত) স্বাস্থ্য সহকারীগণ বাড়ি বাড়ি গিয়ে শিশুদের রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করেছেন। আমরা ১ম সপ্তাহে ১৮২১ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৩ লাখ ৫৩ হাজার ২শ ৭ জন শিশুকে হাম-রুবেলা টিকা দেয়া হবে এবং ২য় ও ৩য় সপ্তাহে ১০৫৬ টি নিয়মিত, ৪৪টি অতিরিক্ত কেন্দ্র, ৫ টি স্থায়ী কেন্দ্র সর্বমোট ১ হাজার ১শ ৫টি কমিউনিটির টিকাদান কেন্দ্র এবং প্রয়োজন মত দূর্গম ও ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রের মাধ্যমে ৩ লাখ ৫ হাজার ২শ ১০ জন শিশুকে হাম-রুবেলার টিকা দেয়া হবে। প্রতিটি টিকাদান কেন্দ্রে কমপক্ষে ২জন টিকাদানকারী এবং ৩ জন সেচ্ছাসেবক দায়িত্ব পালন করবে।

তিনি আরো জানান, আপনাদের সবার সহযোগিতার মাধ্যমে প্রতিটি শিশুকে এই ক্যাম্পিংয়ের আওতায় আমরা নিয়ে আসতে চাই। পুরাতন রোগকে ধীরে ধীরে বিদায় করতে হবে, নাহলে ১৫ থেকে ২০ বছর পর একশটি করে টিকা দিতে হবে আর এতগুলো টিকা দেয়া সম্ভব না। সেজন্য আমরা পোলিওর মত হাম-রুবেলাকে এদেশ থেকে চিরদিনের জন্য বিদায় করতে চাচ্ছি আর এইজন্য আপনাদের সবার সহযোগিতা আমরা চাই।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: জাহিদুর রহমান, জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার ডা.ফারহানা রহমান, তথ্য বিষয়ক কর্মকর্তা স্বপন দেবনাথ, মো: লুৎফর রহমান, জুনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার শাকির হোসেন সহ প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here