নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, বন্দর প্রতিনিধি: রাজনীতিতে বিরোধ থাকলেও দূর্নীতি ও লুটপাটে কাঁেধ কাঁধ মিলিয়ে বিএনপিকে সাথে নিয়ে নানা অপকর্ম করে বেড়াচ্ছে আওয়ামীলীগপন্থী মহাজোটের নেতারা। গত ৫দিন যাবৎ বন্দরের মদনগঞ্জ ট্রলার ঘাটস্থ সরকারি খাস কৃষি জমি ও নদীর তীরের বিআইডব্লিউটিএ এর জমি ড্রেজারের পাইপ দিয়ে মাটি ফেলে ভরাট করে চলছে বিএনপি ও মহাজোটের ড্রেজার সন্ত্রাসী ও ভূমিদস্যুরা। জবর দখলের কবলে কয়েক কোটি টাকার সরকারী সম্পত্তি।

৫ দিন যাবত সরকারি জমি জবর দখল করে ড্রেজার দিয়ে বালু ভরাট অব্যাহত রয়েছে। এ নিয়ে নিন্ম আয়ের কৃষকদের মাঝে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। নিন্ম আয়ের কৃষকরা সরকারি খাস জমিতে সবজি আবাদ করে জীবিকা নির্বাহ করত। সেই সকল নিন্ম আয়ের কৃষকদের পেটে লাথি মেরে সরকারি দলের প্রভাব খাটিয়ে মহাজোট নেতারা এবার সরকারি জমি জবর দখলে মেতে উঠেছে বলে এলাকাবাসী জানান। সরে জমিনে গিয়ে দেখা যায়, মদনগঞ্জ ট্রলার ঘাটস্থ ৩টি ড্রেজার দিয়ে সরকারি খাস জমিতে বালু ফেলা হচ্ছে। এ ব্যপারে ড্রেজার কর্মচারিদের কাছে জানতে চাইলে তারা বলেন, নারায়ণগঞ্জ মহানগর শ্রমিকলীগের সভাপতি কাজিম উদ্দিন, জাতীয়পার্টি নেতা মঞ্জুর হাসান ও কলাগাছিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও জাতীয়পার্টির দেলোয়ার প্রধান এ জমি ভরাট করাচ্ছেন। মাটি ভরাটের দায়িত্বে রয়েছে ড্রেজার মামুনের নেতৃত্বে একদল বিএনপির সন্ত্রাসীবাহিনী। প্রকাশ্যে কয়েক কোটি টাকার সরকারী জমি এভাবে বালু দিয়ে ভরাটের মহাৎসবচললেও প্রশাসনের নিরব ভুমিকা নিয়ে জনমতে সমালোচনা বিরাজ করছে।

এ ব্যপারে নারায়ণগঞ্জ মহানগর শ্রমিকলীগের সভাপতি কাজিম উদ্দিনের সাথে আলাপ করলে তিনি বলেন, এ জমি খাস নয় মালিকানা। তারা বিভিন্ন মালিকদের কাছ থেকে ক্রয় করে নিয়েছেন। এ ব্যপারে জাতীয়পার্টির নেতা মঞ্জুর হাসান বলেন, তারা খাসের জমি ডিসির কাছ থেকে কিনে নিয়েছেন। এখন এ খাস জমি তাদের মালিকানায়।

এ ব্যাপারে কলাগাছিয়া ইউপি চেয়ারম্যান দেলোয়ার প্রধানকে বার বার ফোন করলেও তিনি ফোন কল রিসিভ করেননি।

আর বন্দর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পিন্টু বেপারী বলেন, জেলা প্রশাসক সরকারি জমি বিক্রি করতে পারেন না। তবে বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। বুধবার বালু ভরাট করতে নিষেধ করেছি।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার ওসি আবুল কালাম বলেন, সরকারি জমি ভরাট হচ্ছে বিষয়টি আমার জানা নেই। এদিকে কোন কিছু তোয়াক্কা না করে বালু ভরাট অব্যাহত রেখেছে ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here