নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র সিনিয়র সহ সভাপতি এড. সাখাওয়াত হোসেন খান বলেছেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতাকে কুক্ষিগত করতে মিথ্যা মামলা সাজিয়ে পুতুল জাজের মাধ্যমে বিএনপি’র চেয়ারপার্সণ ও তিনবারের সফল প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে সাজা দিয়ে কারাগারে বন্দি করে রেখেছে। বিচার বিভাগের কাঁধে বন্দুক রেখে সরকার ক্ষমতায় টিকে থাকার স্বপ্ন দেখছে।
বিএনপি চেয়ারপার্সণ বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবীতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি’র উদ্যোগে আয়োজিত মানববন্ধনে সভাপতির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বুধবার (২৫ এপ্রিল) সকাল সাড়ে এগারোটায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের পিছনে চাষাঢ়া বালুর মাঠে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এড. সাখাওয়াত আরো বলেন, সরকার আইনের শাসনের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে বিচার ব্যবস্থাকে নিজেদের ইচ্ছা মতো প্রভাবিত করছে। বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে অসুস্থ্য হয়ে গিয়েছেন কিন্তু প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা তাকে দেয়া হচ্ছে না। জুলুম করতে করতে এই স্বৈরাচারী সরকার সব সীমা অতিক্রম করছে। জুলুমের পরিমান তাদের এতোটাই ভারী হয়ে গেছে যে, তাদের পায়ের নীচ থেকে মাটি সরে যাচ্ছে। ১৯৭৫ সালে যেমন বাংলাদেশকে তলাবিহীন ঝুড়ি বানানো হয়েছিলো, ঠিক সে রকমভাবে এই বিনা ভোটের সরকার দেশের সব ব্যাংকগুলোকে দেউলিয়া করে দিয়েছে। সরকারী দলের মন্ত্রী এমপি’রা কোটি কোটি টাকা দূর্নীতি করে দেশের অর্থনীতিকে ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে ঠেলে দিয়েছে। এদেশের শিক্ষা মন্ত্রী সরকারী কর্মচারীদের ঘুষ খাওয়ার কথা প্রকাশ্যেই বলছেন। আর দুর্নীতি দমন কমিশন বিএনপি’র নেতাকর্মীদের হয়রানী করছে।

তিনি আরো বলেন, আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, সরকার খালেদা জিয়ার মামলায় কোন হস্তক্ষেপ করছে না। আমি তাকে চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিতে চাই, মাত্র পাঁচ বছরের সাজায় বেগম খালেদা জিয়ার জামিন হচ্ছে না, অথচ ভারতে চিত্র নায়ক সালমান খানের পাঁচ বছরের সাজা হওয়ার পরেও মাত্র দুই রাত জেল খেটে সে জামিনে বের হয়ে গেছে। সরকার খালেদা জামিনের বিরুদ্ধে আপীল করেছে। আমরা আমাদের প্রাণপ্রিয় নেত্রীর মুক্তি চাই। নেত্রীর মুক্তির জন্য আমাদের শান্তিপ্রিয় আন্দোলন সংগ্রাম অব্যহত থাকবে। দেশে একটি অবাধ ও গ্রহনযোগ্য নির্বাচনী পরিবেশ তৈরী করতে বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধার করে দেশের মানুষের ভাত ও ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দেয়া হবে।

তারেক জিয়া পরিষদের কেন্দ্রীয় যুগ্ম সম্পাদক এড. ওমর ফারুক নয়নের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন মহানগর বিএনপি নেতা এড. শাহ মাজহারুল ইসলাম, গুলজার হোসেন খান, মনির খান, জেলা শ্রমিক দলের সভাপতি নজরুল ইসলাম খান, জেলা যুবদলের সিনিয়র সহ সভাপতি সালাউদ্দিন মোল্লা, যুবদল নেতা সাজেদুল ইসলাম সেলিম, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহবায়ক এড. এইচএম আনোয়ার প্রধান, বন্দর উপজেলা যুবদলের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম রিপন, যুগ্ম সম্পাদক শাহিন আহমেদ, বন্দর থানা যুবদলের সিনিয়র সহ সভাপতি ফিরোজ আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আহমেদ হোসেন, মহানগর ছাত্রদল নেতা ইব্রাহীম বাবু, মহিউদ্দিন শিশির, যুবদল নেতা দেলোয়ার শাহ, আমিনুল ইসলাম, মহানগর মৎসজীবী দলের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম রতন, সহ সভাপতি লিংকন খান, যুবদল নেতা সজিব খন্দকার, নবু হোসেন, ফারুক হোসেন, চুন্নু, মাসুদ, অপু, রোমান খন্দকার, রাজু আহমেদ, কাঞ্চন আহমেদ, এমএইচ হোসেন, লুৎফর রহমান মন্টু, জাহিদ হোসেন, চপল চৌধুরী, ঋষিকেশ মন্ডলসহ মহানগর বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here