নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: সাংবাদিক পুলিশ উভয় পেশায়ই ভাল খারাপ আছে বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার মো: মনিরুল ইসলাম।
বুধবার (৭ মার্চ) সকাল সাড়ে ১১ টায় নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এই মন্তব্য করেন।

মনিরুল ইসলাম বলেন , ‘পুলিশের পেশায় যেমন মুষ্টিমেয় খারাপ লোক আছে, তেমনি সাংবাদিকতা পেশায় নিয়োজিত সকলেই ভাল নয়। সবক্ষেত্রেই ভাল খারাপ মিলিয়েই আছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘এক শ্রেণীর অপরাধী আছে যারা ভূয়া ডিবি পুলিশ সেজে সাধারন মানুষকে জিম্মি করে অপকর্ম করছে। এই সকল অপরাধীরা অনেক সময় আসল পুলিশকে ইমেজ সংকটে ফেলে দেয়। তাই এখন প্রকৃত ডিবি পুলিশরা নিজস্ব সংস্থার জ্যাকেট পরিধান করে পরিচয় পত্র ঝুলিয়ে বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করছে। কিন্তু তারপরেও যদি ডিবি পুলিশের কারো ব্যাপারে সাধারন জনগণের কোন ধরনের সন্দেহ জাগে, তাহলে তারা চাইলে সংশ্লিষ্ট ডিবি কার্যালয়ে প্রয়োজনে যোগাযোগ করে পুলিশ সদস্যদের ব্যাপারে নিশ্চিত হতে পারবেন। এতে করে ভূয়া ডিবি পরিচয়ে যেমন কেউ আর অপরাধ করতে পারবেনা, তেমনি ডিবি পুলিশের ভাবমূর্তিও অক্ষুন্ন থাকবে।’

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইন চার্জ (ওসি) ড. মাহবুবুর রহমান পিপিএম, পরিদর্শক (তদন্ত) মো: মাজহারুল ইসলাম, পরিদর্শক মাহে আলমসহ ডিবির বিভিন্ন কর্মকর্তাবৃন্দ।

এরআগে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের সাইনবোর্ড এলাকা থেকে মঙ্গলবার সকালে গ্রেফতারকৃত ভূয়া ডিবি পরিচয়দানকারী ডাকাত সদস্য মিলন (৩৯) কে সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত করা হয়।

মনিরুল ইসলাম জানান, গত ৬ মার্চ সকালে ডিবির এসআই আজিজুল হাওলদার, ফিরোজ মুন্সি ও মোঃ আরিফ হোসেন নেতৃত্বে একটি টিম সাইনবোর্ড এলাকায় অভিযান পরিচালানা করে বরিশাল জেলার দোধল মৌ এলাকার আজিমুদ্দিনের পুত্র ভূয়া ডিবির সদস্য মিলন (৩৯) কে গ্রেফতার করে। এসময় তার সঙ্গে থাকা ৭ থেকে ৮ জন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে গেছে। তবে তাদের কাজে ব্যবহৃত একটি নোয়া (ঢাকা মেট্রো-চ-১১-৫৬২৮) গাড়ি ও গাড়ির ভেতর থেকে ১টি পিস্তল, ১টি ম্যাগজিন, ১টি ওয়াকিটকি, ১ জোড়া হ্যান্ডকাপ ২টা লাঠি উদ্ধার করা হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here