নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: এড. সাখাওয়াত হোসেন খান ছাড়া নারায়ণগঞ্জ আদালতে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম ‘ঠুঁটো জগন্নাথ’- এমনটাই দাবী করেছেন বিএনপি পন্থী আইনজীবীরা।
বিএনপির চেয়ারপার্সণ খালেদা জিয়ার সাজার প্রতিবাদে ফোরামের পাঁচ দিনের লাগাতার কেন্দ্রীয় কর্মসূচির প্রথম দিনেই রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারী) কোন কর্মসূচির আয়োজন করতে পারেনি নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম।

এমনকি চেয়ারপার্সণের সাজার রায় ঘোষনার দিনেও প্রতিবাদ মিছিলে দেখা যায়নি ফোরামের সভাপতি কিংবা সাধারণ সম্পদকসহ শীর্ষ কোন দায়িত্বশীল নেতাকে।

কিন্তু যুগ্ম সম্পাদক এড. আবুল কালাম আজাদ জাকিরের নেতৃত্বে গোটা কয়েক আইনজীবী সেই তাৎক্ষনিক প্রতিবাদ সমাবেশে অংশ নেয়।

আদালত সূত্রে প্রকাশ, নারায়ণগঞ্জ আদালতের সিনিয়র আইনজীবী এড. তৈমূর আলম খন্দকারের বলিষ্ঠ নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জ আদালতে দাপটের সাথে অবস্থান করে আসছিলো বিএনপি পন্থী আইনজীবীরা। এড. তৈমূর একটা সময় হাইকোর্ট ও সুপ্রিম কোর্টে ব্যস্ত হয়ে যাওয়ায় নারায়ণগঞ্জ আদালতে পর্যাপ্ত সময় দিতে পারেননি।

তাই তার অনুপস্থিতিতে নারায়ণগঞ্জ আদালতে বিএনপি’র আইনজীবীদের যোগ্য নেতৃত্ব দিয়ে এগিয়ে নিয়ে চলেন এড. সাখাওয়াত হোসেন খান। আর তার নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জ আদালত পাড়ায় যে কোন দলীয় কিংবা জাতীয় কর্মূসূচি পালিত হয়েছে নিয়মিত। এই কিছুদিন আগেও নারায়ণগঞ্জ আদালত পাড়া থেকে সিনিয়র আইনজীবী এড. তৈমূর আলম খন্দকার গ্রেফতার হওয়ায় সময়ও এড. সাখাওয়াতের নেতৃত্বে বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করে বিএনপি পন্থী আইনজীবীরা।

গ্রেফতারের পরে ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করে ২৪ ঘন্টার আলটিমেটাম দেয়া হয় প্রশাসনকে।

অথচ, গত ৫ ফেব্রুয়ারী বিএনপির চেয়ারপার্সনের সিলেট সফরকালে তাকে স্বাগত জানানো শেষে ফেরার পথে সেই সাখাওয়াত হোসেন খানসহ ফোরামের তিন আইনজীবী গ্রেফতারের পর কোন প্রতিবাদী কর্মসূচি পালন করেনি বিএনপি পন্থী আইনজীবীদের সংগঠন জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম।

এমনকি দলীয় চেয়ারপার্সণের বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলায় গত ৮ ফেব্রুয়ারী সাজার রায় ঘোষনার প্রতিবাদেও মাঠে দেখা যায়নি যায়নি ফোরামের শীর্ষ নেতাদের।

সর্বশেষ দলীয় চেয়ারপার্সণের সাজার প্রতিবাদে গত ১০ ফেব্রুয়ারী সুপ্রিম কোর্ট বার এসোসিয়েশনের সভাপতি এড. জয়নুল আবেদীন সারাদেশের বারে টানা পাঁচদিনের লাগাতার অবস্থান কর্মসূচি ঘোষণা করেন।

যার প্রথম দিনেই রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারী) কোন কর্মসূচি পালন করতে পারেনি নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের নেতৃবৃন্দরা। আর এতে করে ফোরামের শীর্ষ নেতৃত্বের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে বিএনপি পন্থী আইনজীবীদের মনে।

এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সভাপতি এড. সরকার হুমায়ুন কবির নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে বলেন, ‘আমরা রবিবার ফোরামের নেতৃবৃন্দরা বসেছিলাম এবং কেন্দ্রীয় কর্মসূচি কিভাবে পালন করবো সে বিষয়ে আলাপ আলোচনা করেছি। সোমবার এড. সাখাওয়াত হোসেন খান, এড. এইচ এম আনোয়ার প্রধান ও এড. মাইনুদ্দিনের রিমান্ড শুনানী অনুষ্ঠিত হবে নারায়ণগঞ্জ আদালতে। রিমান্ড শুনানী শেষ হলে আমরা কর্মসূচি পালন করবো।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here