নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: জেলা আওয়ামীলীগের জন্য প্রায় দেড় যুগ যাবত ঝুলে থাকা থানা, উপজেলা, ইউনিয়ন কমিটি গুলোর পুনর্গঠন হতে যাচ্ছে চলতি বছর। অনুমোদনের পরেও অপেক্ষায় থাকা নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি শীঘ্রই আনুষ্ঠানিক ভাবে কেন্দ্র থেকে ঘোষণা হওয়ার পরপরই তৃণমূল পর্যায়ে দলকে আরো সুসংগঠিত করতে শুরু হবে থানা পর্যায়ে নতুন কমিটি গঠন।

এদিকে, জেলা আওয়ামীলীগের তিন সদস্যের আংশিক কমিটির ঘোষণার প্রায় ৮ মাস পর দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনা পূর্ণাঙ্গ কমিটি অনুমোদন দেয়ার পর এখন নব প্রাণের সঞ্চার ঘটেছে তৃণমূলে। থানা, উপজেলা, পৌরসভা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে নতুন কমিটিতে পদ পদবী পেতে এবং দলের মধ্যে সুবিধাবাদীদের অনুপ্রবেশ ঠেকাতে তৎপর হয়ে উঠছেন তৃণমূলের নেতাকর্মীরা।

দলীয় সূত্রে জানাগেছে, গত ৩০ জুলাই নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে দলীয় নতুন সদস্য সংগ্রহ কার্যক্রম শুরু হলেও জেলার পূর্ণাঙ্গ কমিটি না থাকার কারনে উপজেলা পর্যায়ে এই কার্যক্রম পরিচালনায় সম্মস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদককে।

এছাড়াও আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কে কেন্দ্র করে তৃণমূল পর্যায়ে দলকে আরো সুসংগঠিত করে তুলতে জেলা আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা অত্যাবশক হয়ে দাঁড়ায়। অত:পর জেলার শীর্ষ নেতাদের বারংবার তাগাদার প্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় নেতাদের জোর সুপারিশে সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের ৭৫ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেন আওয়ামীলীগ সভাপতি শেখ হাসিনা।

তবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের ৭২ তম সাধারন অধিবেশনে যোগ দিতে বর্তমানে নিউইয়র্কে অবস্থান করায় এবং বন্যা, রোহিঙ্গা ইস্যুতে কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক পর্যায়ের শীর্ষ নেতারা কক্সবাজারে অবস্থান করায় অনুমোদনের পরও জেলা আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণায় বিলম্ব হয়ে যায়। ফলে অনুমোদন হলেও এখন কেবল মাত্র আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘোষণার অপেক্ষায় রয়েছে জেলা আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি।

এব্যাপারে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল হাই নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডিকে জানান, ‘সম্প্রতি জেলা আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দিয়েছেন আওয়ামীলীগ সভাপতি শেখ হাসিনা। আর প্রধানমন্ত্রী জাতিসংঘের অধিবেশন শেষে দেশে ফিরার পরেই আনুষ্ঠানিক ভাবে জেলা আওয়ামীলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে তাকে নিশ্চিত করেছেন কেন্দ্রীয় নেতবৃন্দরা।’

তিনি আরো জানান, ‘পূর্ণাঙ্গ কমিটির ঘোষণার পরপরই পরবর্তী কার্যক্রম হিসেবে তৃণমূলকে ঢেলে সাজানোর লক্ষ্যে চলতি বছরের মধ্যেই সকল থানা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে কমিটি পুনর্গঠন করা হবে।’

প্রায় দীর্ঘ দেড় যুগ পর গত বছরের ৯ অক্টোবর নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আগে কেন্দ্র থেকে নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের তিন সদস্যের আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়। এতে সাবেক জেলা পরিষদ প্রশাসক আবদুল হাইকে সভাপতি, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন মেয়র ডা: সেলিনা হায়াত আইভী কে সহ-সভাপতি ও জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত মো. শহীদ বাদলকে সাধারণ সম্পাদক করা হয়।

আংশিক কমিটি ঘোষণার পর নেতাকর্মীরা আশা করেছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগে নতুন করে প্রাণ ফিরে পেয়েছে। সকল ভেদাভেদ ভুলে শিগগিরই নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে। কিন্তু তা বাস্তবায়ন হতে আরো প্রায় ৮ মাস সময় পেরিয়ে যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here