নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি: মুসলমানদের ধর্মীয় উৎসব পবিত্র মহরম আশুরা ও সনাতন ধর্মের সবচেয়ে বড় উৎসব শারদীয় দূর্গোৎসব একইসাথে ধর্মীয় ভাবগম্ভীর্য ও উৎসাহ উদ্দীপণার সাথে নারায়ণগঞ্জে উদযাপিত হবে এবং সে লক্ষ্যে সকল ধরনের নিরাপত্তার আশ^াস দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মইনুল হক।
পবিত্র আশুরা ও শারদীয় দূগাপূজা উপলক্ষে সার্বিক নিরাপত্তা ব্যবস্থা সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট সকলের সাথে মত বিনিময় সভায় তিনি এ আশ^াস দেন।

বৃহস্পতিবার (২১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে এই মত বিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

মত বিনিময় সভায় প্রাক পূজা নিরাপত্তা, পূজা চলাকালীন নিরাপত্তা, প্রতিমা বিসর্জণ এবং পরবর্তী নিরাপত্তা, মহররম আশুরার সার্বিক নিরাপত্তা ও বিজয়া দশমী ও আশুরার তাজিয়া মিছিল একইদিনে অনুষ্ঠানে দুই পক্ষের সমন্বয়ের মাধ্যমে সার্বিক নিরাপত্তা বিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন এবং দিক নির্দেশনামূলক বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মইনুল হক।

এ সময় পুলিশ সুপার মইনুল হক বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রান্তিকর পোষ্ট, মন্তব্য বা ছবি আপলোড করে কেউ যেন সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে না পারে সে বিষয়ে সকলকে সচেতন থাকতে হবে। সেই লক্ষ্যে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, সকল ধর্মের গণ্যমান্য ব্যক্তি, পুলিশ কর্মকর্তা, পূজা কমিটির সমন্বয়ে এলাকাভিত্তিক সাম্প্রায়িক সম্প্রীতি রক্ষা কমিটি গঠন করতে হবে এবং আগামীকালের মধ্যে এই কমিটির তালিকা জমা দিতে হবে। এলাকায় কোন নতুন লোক এলো কিনা তার খোঁজ রাখতে হবে। জঙ্গিরা সাধারণত পাকা বাড়ি ভাড়া নেয়, তাদের ঘরে কোন আসবাবপত্র থাকে না। তারা এলাকার মানুষজনের সাথে তেমন একটা মিশে না, এমনকি এলাকার মসজিদে নামাজ পর্যন্ত পরতে যায় না। এ ধরনের সন্দেহজনক কোন কিছু পরিলক্ষিত হলে সঙ্গে সঙ্গে আমাদেরকে অবহিত করবেন। পূজা কিংবা আশুরা উপলক্ষে কোন মেলার আয়োজন করা যাবে না। আশুরার তাজিয়া মিছিলে ধাতব কোন বস্তুু সঙ্গে আনা যাবে না। ৩০ সেপ্টেম্বর বিজয়া দশমীর দিন আশুরার তাজিয়া মিছিল সংক্ষিপ্ত করতে হবে এবং যে সড়কে ঐ দিন তাজিয়া মিছিল বের হবে, সে সড়কে পূজা উদযাপণ পরিষদের কয়েকজন নেতাকে উপস্থিত থেকে আশুরা কমিটির নেতাদের সাথে সমন্বয় করে দুটি উৎসব সফল করতে হবে। নারায়ণগঞ্জের পুলিশ প্রশাসন সর্বদা আপনাদের নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবে।

এ সময় নারায়ণগঞ্জ মহানগর পূজা উদযাপণ পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখন সরকার শিপন বলেন, এবারের শারদীয় দূর্গোৎসব সফল করতে আমরা এ মাসেন আট তারিখে নিজেরা সকল নেতৃবৃন্দকে নিয়ে মিটিং করেছি, ১০ তারিখে সার্কিট হাউসে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে মত বিনিময় করেছি এবং ১৬ তারিখে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমানের সঙ্গে নারায়ণগঞ্জ ক্লাবে আলোচনা করেছি। আমাদের সকল প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে, এখন থেকেই পূজার উৎসব ধ্বনী শোনা যাচ্ছে নারায়ণগঞ্জের সবখানে। দীর্ঘদিনের ঐতিহ্য ধরে রেখে এবারো নারায়ণগঞ্জের সকল ধর্মের মানুষকে সাথে নিয়েই শারদীয় দূর্গোৎসব পালন করা হবে এবং অসম্প্রদায়কি চেতনার ধারাবাহিকতা ধরে রাখা হবে। শারদীয় দূর্গোৎসবের কারনে মুসলমানদেও পবিত্র মহররম আশুরা পালনে কোন প্রকার ব্যঘাত সৃষ্টি হবে না। আমরা মিলেমিশে সব উৎসবই বরাবরের মতো শান্তিপূর্ণভাবে পালন করতে বদ্ধ পরিকর। সবাইকে শারদীয় দূর্গোৎসবের শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।

এ সময় পূজা উদযাপণ পরিষদ ও মহররম পরিচালনা কমিটির নেতৃবৃন্দের কাছ থেকে বিভিন্ন সমস্যার কথা শুনেন এবং সমাধানের আশ^াস দেন নারায়ণগঞ্জের পুলিশ সুপার মইনুল হক।

জেলা পুলিশ সুপার মঈনুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( প্রশাসন) মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( ডিএসবি) মোঃ ফারুক হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ( ট্রাফিক) মোঃ হারুন অর রশিদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (‘ক’ সার্কেল) মোঃ শরফুদ্দীন, সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহিন শাহ পারভেজ, ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ কামাল উদ্দিন, বন্দর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল কালাম , জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক সুজন সাহা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কমলেশ সাহা, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক উত্তম সাহা, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি কমান্ডার গোপিনাথ দাশ, সাধারণ সম্পাদক প্রদীপ কুমার দাস , মহানগরের সভাপতি লিটন চন্দ্র পাল, সাধারণ সম্পাদক নিমাই দে, সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি দিলীপ মন্ডল, সাধারণ সম্পাদক রঞ্জিত মন্ডল, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শিশির ঘোষ অমর, বন্দর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শংকর দাশ, সাধারণ সম্পাদক শ্যামল বিশ্বাস, সাংগঠনিক সম্পাদক রিপন দাস, সোনারগাঁ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি লোকনাথ দত্ত, রূপগঞ্জ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি গনেশ চন্দ্র পাল, আড়াইহাজার পূজা উদযাপন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আরাধন মন্ডল, উত্তর র‌্যালী বাগান মহররম উদযাপণ কমিটির সভাপতি জাহিদ হোসেন, উত্তর র‌্যালী বাগান পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি মো: হোসেন, আদমজী অবাঙ্গালী বিহারী ক্যাম্পের সভাপতি লিয়াকত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মো: শামীম প্রমূখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here