নিউজ প্রাচ্যের ডান্ডি, সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২ নং ওয়ার্ডর সাহেবপাড়া এলাকায় কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনের বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিনের বাড়ীর দেয়াল ভাংচুরের ঘটনাসোমবার সকাল ১০ টায় তদন্ত করেছেন সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ এহতেশামুল হক এর নেতৃত্বে একটি দল।

স্থানীয় লোকজন রাস্তার দাবিতে কাউন্সিলর ইকবাল হোসেনকে সমর্থন করায় আলোচনা সাপেক্ষে বীর মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিনের নামে সড়কটির নামকরণ করার শর্তে সর্বসম্মতিক্রমে জনস্বার্থে রাস্তা নির্মাণ করার সিদ্ধান্ত নেয় সিটি কর্পোরেশনের তদন্ত দল। অভিযোগকারী বাড়ীর মালিক মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন ও তার পরিবার অভিযোগ প্রত্যাহার করে রাস্তা নির্মাণে সম্মতি প্রদান করলে উপস্থিত শত শত এলাকাবাসী আনন্দ উল্লাস প্রকাশ করেন। এসময় সিটির সহকারী প্রকৌশলী জীবন কৃষ্ঞ ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী সুমন দেবনাথ,অভিযুক্ত কাউন্সিলর ইকবাল হোসেন ও সাহেবপাড়া এলাকার মাদবর আবদুর রহিমসহ বহু গণ্যমান্য ব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে, এলাকাবাসীর দাবিতে গত ২ নভেম্বর রাস্তা নির্মানের জন্য মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিনের বাড়ীর দেয়াল ভাংঙ্গা হয়। এ ঘটনায় বাড়ীর মালিক মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন সিটি কর্পোরেশনের মেয়রের বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ফলে মেয়রের নির্দেশে সিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ এহতেশামুল হক এর নেতৃত্বে সহকারী প্রকৌশলী জীবন কৃষ্ঞ ও উপ-সহকারী প্রকৌশলী সুমন দেবনাথ গতকাল সোমবার সকাল ১০ টায় ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ বিষয়ে সিটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ এহতেশামুল হক এর সাথে কথা হলে তিনি জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এলাকার উন্নয়ন ও জনস্বার্থে জায়গা ও বাড়ীর মালিক রাস্তা নির্মাণ করতে সম্মতি প্রদান করেছেন। বিষয়টি নিয়ে আর কোন সমস্যা নেই।

কাউন্সিলর ইকবাল হোসেন জানান, মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিনের সাথে আমার কোন শত্রুতা নেই। এলাকার উন্নয়ন ও জন্বসস্বার্থে রাস্তা নির্মাণ করার জন্য বাড়ীর বাউন্ডারী দেয়াল ভাঙ্গা হয়। সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে বিষয়টি নিস্পত্তি হয়েছে।

বীর মুক্তিযোদ্ধা গিয়াস উদ্দিন জানান আমার বাড়ীর মেইন গেইট লাগিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি ও সড়কটি আমার নামে নাম করণ করার সিদ্ধান্ত গ্রহন করায় অভিযোগ প্রত্যাহার করে সড়ক নির্মাণের জন্য জায়গা দিতে সম্মতি প্রদান করেছি।

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here